মাটিরাঙ্গায় রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় মুক্তিযোদ্ধার দাফন

প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পুলিশের একটি চৌকষ দল গার্ড অব অনার প্রদান করেন
প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধাকে পুলিশের একটি চৌকষ দল গার্ড অব অনার প্রদান করেন
খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গার তবলছড়ির বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আবদুল জলিল প্রকাশ রকেট জলিলকে (৬৫) যথাযথ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৫টার দিকে নামাজে জানাযা শেষে তবলছড়ি কেন্দ্রীয় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রতিনিধি উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শেখ মো: আশরাফ উদ্দিন বাদল‘র নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকষ দল তাকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন। এসময় তিনি প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধার মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

তিনি মঙ্গলবার সকাল পৌনে আটটার দিকে তবলছড়ি ইউনিয়নের বাজার পাড়ার নিজ বাড়িতে বার্ধক্য জনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, সাত ছেলে ও চার মেয়ে এবং অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন।

এসময় খাগড়াছড়ি জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহকারী কমান্ডার সৈয়দ আহম্মদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার মো: মনসুর আলী, মাটিরাঙ্গার তবলছড়ি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি উপ-পরিদর্শক মো: মকবুল হোসেন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো: দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: জামাল উদ্দিন ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি মো: হারুন মিয়াসহ মরহুমের আত্মীয়-স্বজনসহ সর্বস্তরের মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: আবদুল জলিল প্রকাশ রকেট জলিল ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে ৮নং সেক্টরের অধীনে যশোর জেলার শার্শা উপজেলায় মহান মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন।

আরও পড়ুন
Loading...