মানিকছড়িতে আওয়ামী লীগের প্রচারণার সময় হামলা : আহত ২

মানিকছড়ি আওয়ামী লীগের প্রচারণার সময় সিএনজি ভাংচুর
খাগড়াছড়ি আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক মার্কা প্রার্থী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার মানিকছড়িতে প্রচার কাজে হামলা চালিয়ে দুই আওয়ামীলীগ কর্মীকে এবং সিএনজি ও প্রচার মাইক ভাংচুর করেছে দুবৃর্ত্তরা। ফলে ঘটনার প্রতিবাদে তাৎক্ষনিক বিক্ষোভ মিছিল করে এ ঘটনায় বিএনপিতে দায়ী করেছে আওয়ামীলীগ।
পুলিশ ও আওয়ামীলীগ সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ খাগড়াছড়ি আসনের প্রার্থী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরার পক্ষে প্রতি দিনের ন্যায় ১৯ ডিসেম্বর মানিকছড়িতে সিএনজি যোগে প্রচারণা চালায় দলীয় নেতা-কর্মীরা। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আমতলা থেকে গচ্ছাবিল যাওয়ার পথে মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী সরকারি ডিগ্রি কলেজ এলাকায় পৌছলে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জন মুখোশধারী অর্তকিত লাঠি-সোটা নিয়ে সিএনজির ওপর হামলা চালায় এবং প্রচার মাইক ও সিএনজিতে ব্যাপক ভাংচুর করে। এ সময় প্রচারণায় ব্যস্ত থাকা সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সেলিম মিয়া (৩০) ও সিএনজি ড্রাইভার মো. আবদুর রাজ্জাক আহত হয়।
চিকিৎসক ডা.মহি উদ্দীন জানান, আহত সেলিমকে পর্যবেক্ষনে রাখা হয়েছে। আর আবদুর রাজ্জাককে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
খবর পেয়ে পুলিশ ও দলীয় লোকজন ছুঁটে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি পেট্রোল বোমা উদ্ধার করে। এর একটি বিস্ফোরিত হলেও অন্যটি অবিস্ফোরিত থেকে যায়। দ্রুত এ ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়লে সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে আওয়ামী লীগ,ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি দলীয় অফিস থেকে শুরু বাজার ঘুরে অফিসে শেষ হয়। এ ঘটনার জন্য বিএনপিকে দায়ী করে এর সুষ্ঠ বিচার দাবী এবং বিএনপি সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবী জানান। ঘটনার পর পর পুলিশ ও সেনাবাহিনী এলাকায় টহল জোরদার করেছে।
অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সরজমিন পরিদর্শন করেছে। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে অভিযোগ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।