মৌলবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে : রাঙামাটিতে উদীচীর সম্মেলনে বক্তারা

রাঙামাটিতে উদীচীর সম্মেলনে বক্তারা
“সময়ের ভ্রান্তিতে টলো না, লড়াইটা কখনোই ভুলো না’ এই স্লোগানে ধারন কওে রাঙামাটি জেলা উদীচীর সপ্তম জেলা সম্মেলন শনিবার রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে। দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধন ও কাউন্সিল অধিবেশনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,উদীচী কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি ডা: চন্দন দাশ।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,মানুষের চেতনার পরিবর্তন না হলে সাম্যের পৃথিবী গড়ে উঠবে না। সাম্যের পৃথিবী গড়তে হলে নিজেদের চেতনার জায়গায় পরিবর্তন আনতে হবে। রাঙামাটি জেলা উদীচীর সভাপতি অমলেন্দু হাওলাদারের সভাপতিত্বে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন বক্তব্য রাখেন, জেলা উদীচীর সহ-সভাপতি রণজিৎ পাটোয়ারী, জেলা য্বু ইউনিয়নের সভাপতি এম জিসান বখতেয়ার, কাপ্তাই উদীচীর সাধারন সম্পাদক ঝুলন দত্ত,অমিত বিশ্বাস বাবলু,যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিল্টন বিশ্বাস, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি অভিজিত বড়ুয়াসহ উদীচীর বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যবৃন্দ।
কাউন্সিলে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর সহ-সভাপতি ডা. চন্দন দাশ বলেছেন, ‘আজ এদেশের মানুষের চেতনায় ধর্মীয় মৌলবাদ বেড়েছে। বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী এসব মৌলবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার রয়েছে। আমাদের এসব মৌলবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। মানুষের চেতনার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।’ এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘পুঁজিবাদের কারণেই বিশ্বে সাম্প্রদায়িক আগ্রাসন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশে এখনও বছরে বিশ লক্ষাধিক মানুষ চিকিৎসার ব্যয়ের জন্য ভিটেমাটি বিক্রি করছেন। এছাড়া দুই লক্ষ মানুষ হতদরিদ্র হয়ে যায়।’
দুপুরে আলোচনা সভা শেষে অনুষ্ঠিত কাউন্সিল অধিবেশনে শোক প্রস্তাব,বিশেষ প্রস্তাব,সাধারন সম্পাদকের প্রতিবেদন, অর্থ প্রতিবেদন উপস্থাপন করা হয়। বিকেলের কাউন্সিল অধিবেশন জেলা শাখার সকল প্রতিনিধি/পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে জেলা উদীচীর সভাপতি অমলেন্দু হাওলাদারকে সভাপতি ও বিজয় ধরকে পুনরায় সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন করা হয়।

আরও পড়ুন
Loading...