রাঙামাটিতে আওয়ামী লীগের ৩ কর্মীকে অপহরণের অভিযোগ

NewsDetails_01

রাঙামাটির কাউখালী উপজেলা থেকে আওয়ামী লীগের ৩ কর্মীকে অপহরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ সোমবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরের দিকে উপজেলার কলমপতি ইউনিয়নের বড় আমছড়ি এলাকা থেকে তাদের অপহরণ করা হয়। অপহৃতরা হলেন, চাখিয়াই মং মারমা, বাদো মারমা ও চিংথোয়াই প্রু মারমা। তারা কলমপতি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কর্মী।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কয়েকদিন ধরেই আঞ্চলিক সংগঠন ইউপিডিএফ’র পক্ষ থেকে তিন আওয়ামী লীগ কর্মীকে সংসদ নির্বাচনে নৌকার পক্ষে কাজ না করার জন্য বলা হয়েছিল। কিন্তু, তারা দলের হয়ে কাজ করায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে শঙ্কা করা হচ্ছে।

NewsDetails_03

কলমপতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও কাউখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ক্যজাই মারমা বলেন, আমাদের তিন কর্মীকে অপহরণের খবর পেয়েছি। দুপুরের দিকে তাদেরকে নিয়ে গেছে। আমরা আশঙ্কা করছি, এই ঘটনার সঙ্গে ইউপিডিএফ জড়িত। এলাকাটি দূর্গম হওয়ায় বিস্তারিত খবর নিতে সময় লাগছে।

অপহরণের অভিযোগের বিষয়ে ইউপিডিএফ’র মুখ্য সংগঠক অঙগ্য মারমা বলেন, অভিযোগের বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। এই ঘটনার সঙ্গে ইউপিডিএফ জড়িত নয়। পার্বত্য চট্টগ্রামের মানুষ নির্বাচনের ভোট বর্জন করেছে তার প্রমাণ বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোট শূন্য ছিল। মূলত, সেটিকে ঢাকতেই ইউপিডিএফের বিরুদ্ধে নাটক সাজানো হচ্ছে।

রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহ ইমরান (অপরাধ) বলেন, ‘এ বিষয়ে কিছু জানি না। আমরা এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি।’

আরও পড়ুন