রাঙামাটিতে আবার পাহাড়ধস, টানা বৃষ্টি, আতঙ্ক

রাঙামাটিতে আবার পাহাড়ধসের ঘটনা ঘটেছে। গত ১৩ জুনের বিপর্যয়কর পাহাড়ধসের ঘটনার ২০ দিনের মাথায় আজ সোমবার আবার এই ঘটনা ঘটল। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।
আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়কের মানিকছড়ির দেপ্পোছড়ি এলাকায় একটি পাহাড়ের অংশবিশেষ ধসে পড়ে। এতে প্রায় এক ঘন্টা ওই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ থাকে।
পরে রাঙামাটি সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগ রাস্তা পরিষ্কার করে যান চলাচলের ব্যবস্থা করেছে বলে রাঙামাটি সওজের নির্বাহী প্রকৌশলী এমদাদ হোসেন প্রথম আলোকে জানিয়েছেন।
গত রোববার রাত থেকে রাঙামাটিতে একটানা মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত চলেছে। আজ বেলা তিনটা পর্যন্ত একবারের জন্যও বৃষ্টিপাত সম্পূর্ণ বন্ধ হয়নি। এখনো বৃষ্টি হচ্ছে।
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানার পর জেলা প্রশাসন রোববার সন্ধ্যার পর থেকে মাইকিং করে সবাইকে সতর্ক করে। এরপর প্রায় সারা রাতই বৃষ্টি হয়েছে যা একটানা এখনো অব্যাহত আছে।
এই ধরণের বৃষ্টিতে সবার মধ্যেই নতুন করে পাহাড়ধসের আতংক সৃষ্টি হয়েছে। কয়েকটি আশ্রয়কেন্দ্রে নতুন করে কিছু আতঙ্কিত মানুষ আসছে বলে জেলা প্রশাসনের সূত্র জানিয়েছে। গতকাল সকালে শহরের প্রান্তবর্তী উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়ে জানা গেছে, সেখানে নতুন করে দুটি পরিবার আশ্রয় নিয়েছে। এর মধ্যেই দেপ্পোছড়িতে ধসের ঘটনা ঘটল।
গত ১৩ জুন নজিরবিহীন পাহাড়ধসে একমাত্র রাঙামাটিতেই ১২০ জন মানুষ মারা যান। আহত হয়েছিলেন অন্তত ৮৮ জন, যাঁদের অনেকে এখনো চিকিৎসাধীন আছেন। সূত্র : প্রথম আলো

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।