রাঙামাটিতে কাজ চলাকালেই বৈদ্যুতিক লাইনে সঞ্চালন : ১ শ্রমিক নিহত

রাঙামাটিতে বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন সংস্কারের সময় বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিবাদে শুক্রবার রাত ১১টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। নিহতের নাম মোঃ বাপ্পী। সে শহরের মোল্লা পাড়া এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।

শ্রমিকদের অভিযোগ, শহরের দেবাশীষ নগর এলাকায় শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিদ্যুতের লাইন সম্প্রসারণ কাজের অংশ হিসেবে ঠিকাদারের চুক্তিভিত্তিক শ্রমিকরা কাজ করছিলেন। একপর্যায়ে সম্প্রসারণ লাইনে সংযোগ চালু করে দেয় বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। নির্দেশনা অনুযায়ী সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা বিদ্যূতের সঞ্চালন লাইন বন্ধ রাখার কথা ছিল। কিন্তু বেলা ১২টার দিকে হঠাৎ সঞ্চালন লাইন চালু করে দেওয়া হয়। এতে শ্রমিক বাপ্পী গুরুতর আহত হন। তার দুটি হাত ঝলসে যায়। পরে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়া হলে সন্ধ্যা ৭টার দিকে তার মৃত্যু হয়। বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের অবহেলায় তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে শ্রমিকরা অভিযোগ করেন।

কোতয়ালী থানার ওসি কবির হোসেন বলেন, আমরা সংবাদ পেয়ে নিহত’র লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শুক্রবার রাতে বিক্ষুব্ধ জনতা সঠিক বিচারের আশ্বাস পেয়ে বাড়ি ফিরে গেছে বলেও জানান ওসি।

তবে দায় কাঁধে নিতে নারাজ রাঙ্গামাটি বিদ্যুৎ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সবুজ কান্তি মজুমদার। তিনি বলেন, সঞ্চালন লাইনের মেরামতের জন্য পুর্ব ঘোষনা অনুযাযী ‘সকাল ৮টা থেকে বিকাল ১টা পর্যন্ত সঞ্চালন লাইন বন্ধ রাখা হয়েছে। কিভাবে এ ঘটনা ঘটেছে, বুঝতে পারছি না। এটি একটি দুর্ঘটনাও হতে পারে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।