রাঙামাটিতে নৌকার বিজয় পুনরুদ্ধার করা সম্ভব : দীপংকর তালুকদার

রাঙামাটিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার
রাঙামাটিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার
সকল নেতাকর্মীদের ঐক্য থেকে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অস্ত্রধারীদের প্রতিরোধ করে ভোট ডাকাতি রুখে দেয়া গেলে, রাঙামাটিতে নৌকার বিজয় পুনরুদ্ধার করা সম্ভব। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে সদস্য পদ লাভ করায় সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারকে রবিবার রাঙামাটিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে রাঙামাটি জিমনেসিয়াম মাঠে দীপংকর তালুকদারকে দলের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রামের মহিলা সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমাসহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের অন্যান্য নের্তৃবৃন্দরা বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন, রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

রাঙামাটিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার
রাঙামাটিতে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দীপংকর তালুকদার পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করার আহবান জানিয়ে বলেন, এখন থেকে পাহাড়ের স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে, এজন্য সর্বদা নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধভাবে থেকে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে বিশ্বাসি, এই বিশ্বাসকে যারা ভঙ্গ করতে চাই তারা কখনোই আওয়ামীলীগের একজন প্রকৃত নেতা হতে পারেনা।

সকালে দীপংকর তালুকদার রাঙামাটি এসে পৌঁছে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্তম্ভ ও কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এর আগে দীপংকর তালুকদারকে জেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা কাউখালী উপজেলার রাবার বাগান হতে পুরো শহরে বিশাল মোটর শোভাযাত্রা সহকারে সংবর্ধনা জানায়।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে কাউন্সিলের পর সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারকে জাতীয় কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পদে মনোনিত করা হয়।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।