রাঙামাটিতে পাহাড় ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ঢেউটিন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান

রাঙামাটিতে পাহাড় ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ঢেউটিন ও আর্থিক সহায়তা প্রদান করছে দি স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ
গত বছরের ১৩জুন পাহাড়ধ্বস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ রাঙামাটির দূর্গম বিলাইছড়ি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ৬০টি পরিবারকে বাড়ীঘর নির্মানের জন্য ৩য় পর্যায়ে ১৮পিস ঢেউটিন, ৪পিস টুলি ও প্রতিটি পরিবারকে নগদ ৫হাজার ৫শত টাকা করে আর্থিক সহায়তা দিয়েছে বিদেশী দাতা সংস্থা দি স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ।
আজ রবিবার সকালে বিলাইছড়ি উপজেলা সদরের কৈননীয়া কার্যালয় প্রাঙ্গন ও পাংখোয়া পাড়ায় রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া প্রধান অতিথি হিসাবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যদের মাঝে ঢেউটিন ও আর্থিক সহায়তা বিতরণ করেন।
এ সময় দি স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ এর জেনারেল সেক্রেটারী জন রৌমিং লিয়না, স্যালভেশন আর্মীর ঢাকা ডিষ্ট্রিক অফিসার মেজর ডেনিস বিশ্বাস, স্যালভেশন আর্মীর কোর অফিসার ক্যাপ্টেইন সুকুমার সরকার, স্যালভেশন আর্মীর প্রজেক্ট ডিরেক্টর ভিক্টর মন্ডল, বিলাইছড়ি ১নং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুনীল কান্তি দেওয়ান, বিলাইছড়ি ফারুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিদ্যালাল তংচঙ্গ্যা, বিলাইছড়ি বল্লালছড়া মৌজার হেডম্যান তরুন কান্তি তংচঙ্গ্যা, বিলাইছড়ি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জয়সেন তংচঙ্গ্যা, বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা হিমাওয়ান্তির কর্মকর্তা রাঙ্গাবী তংচঙ্গ্যা’সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন ।
অনুষ্ঠানে বক্তরা বলেন, আত্ম মানবতার সেবায় সরকারী,বেসরকারী দাতা ও উন্নয়ন সংস্থাগুলোর ন্যয় সমাজের বিত্তবানরাও এগিয়ে আসলে প্রাকৃতিক সৃষ্ট সকল দূর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ, অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষেরা অনেক উপকৃত হবে এবং তারা সাহস পাবে। দুঃখের দিনে পাশে থাকাটাই তাদের আগামি দিনে বেঁচে থাকার প্রেরনা যোগাবে। অবহেলিত মানুষের পাশে থেকে যে কোন দূর্যোগ মুহুর্তে মানবতার কল্যাণে কাজ করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহব্বান জানান বক্তারা।
গত বছরের ১৩জুন পাহাড় ধ্বস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগে বিলাইছড়ি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ ৬০টি পরিবারের প্রত্যেককে বাড়ীঘর নির্মানে ৮৪ হাজার ১শত ৭৯ টাকা করে দেয়ার ঘোষনা দেন স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ সংস্থাটি। গত ১৯ জানুয়ারি ১ম পর্যায়ে নগদ ১০ হাজার, ২য় পর্যায়ে নগদ ২০ হাজার ও ৩য় পর্যায়ে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে বাকী অর্থগুলো প্রদান করা হবে বলে জানান সংস্থাটির জেনারেল সেক্রেটারী জন রৌমিং লিয়না ।
অন্যদিকে দাতা সংস্থা দি স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ এরপক্ষ থেকে ভুমিধ্বসে ক্ষতিগ্রস্থ রাঙামাটি সদরের ৫০টি এবং কাউখালী উপজেলার ৪০টি পরিবারকে সমপরিমান অর্থ ও ঢেউটিন প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য, বিদেশী দাতা সংস্থা দি স্যালভেশন আর্মী বাংলাদেশ বিশ্বের ১২৮ টি দেশে আত্মমানবতার সেবায় কাজ করছে। ১৯৭২ সাল থেকে এ সংস্থা বাংলাদেশে বিভিন্ন আর্থসামাজিক উন্নয়নে কাজ করছে। তবে পার্বত্য চট্টগ্রামে এ প্রথম বারের মতো তারা কাজ শুরু করেছে।

আরও পড়ুন
Loading...