রাঙামাটিতে বুদ্ধ পূর্ণিমার মঙ্গল শোভাযাত্রা

দেশের সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে রাঙামা‌টিতে যথাযোগ্য ধর্মীয় মর্যাদায় বৌদ্ধ বিহার ও শাখা বন বিহার গুলোতে শুভ বুদ্ধ পর্ণিমা উপলক্ষে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম বুদ্ধ এই পূর্ণিমায় জন্মগ্রহণ, বুদ্ধত্ব লাভ এবং মহাপরিনির্বাণ লাভ করায় বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে এই দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আজ শুক্রবার (১৩ মে) সকালে বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, রাঙামা‌টি ও পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ’র উদ্যোগে রাঙামা‌টি পৌর এলাকার বিভিন্ন বিহারের অধ্যক্ষ ও দায়ক দায়িকাদের অংশ গ্রহনে জেলার জিমন্যাসিয়াম হতে বনরূপার মৈত্রী বিহার পর্যন্ত বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভা যাত্রা শেষে ধর্মীয় আলোচনা সভায় মিলিত হয়। এতে রঙ-বেরঙের বৌদ্ধ পতাকা হাতে নিয়ে পুণ্যার্থী বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী ও পুরুষ অংশ নেন।

এর আগে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফিতা কেটে মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা ও পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশের সভাপতি শুদ্ধালংকার মহাথের।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট রাঙামা‌টির ট্রাস্টি জয় সেন তঞ্চঙ্গ্যা, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দূর্গেশ্বর চাকমাসহ শহরের বিভিন্ন বিহারের বৌদ্ধ ভিক্ষু সংঘ ও দায়ক দায়িকারা।

এ সময় বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরুরা এই বুদ্ধ পূর্ণিমার মধ্যদিয়ে সকল প্রকার লোভ, হিংসা, মোহ সংঘাতসহ যাবতীয় খারাপ কাজ পরিহার করে সৎ পথে চলতে ও মৈত্রীপূর্ণ মনোভাব নিয়ে একে অপরে সুখে-শান্তিতে বসবাস করার হিতোপদেশ প্রদান করেন।

এছাড়াও অন্যান্য বৌদ্ধ বিহারগুলোতে প্রদীপ প্রজ্বলন, শান্তি ও মঙ্গল শোভাযাত্রা, ধর্মীয় আলোচনা সভা, সমবেত প্রার্থনা, আলোচনা সভা ও বুদ্ধ পূজা, পিন্ডদান, প্রাতঃরাশ, পঞ্চশীল গ্রহণ, সংঘদান, অষ্টপরিষ্কার দান, বুদ্ধমূর্তি দান, প্রদীপ পূজাসহ দিনব্যাপী কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এসময় পৃথিবীর মানব জাতির শান্তি ও মঙ্গল কামনায় বিশেষ প্রার্থনা করা হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।