রাঙামাটিতে শপথ পাঠ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি সভা

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মুজিববর্ষ সফলভাবে পালনের লক্ষ্যে আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একযোগে সারা জাতিকে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন। হাতে থাকবে জাতীয় পতাকা। সারাদেশের ন্যায় রাঙামাটি মারী স্টেডিয়ামেও বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার মানুষ জাতীয় পতাকা হাতে শপথ বাক্য পাঠ করবেন। ওইদিন বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজা থেকে ভার্চুয়ালী সারাদেশের সঙ্গে যুক্ত হয়ে শপথ পড়াবেন।

শপথ অনুষ্ঠানের জন্য প্রয়োজনীয় প্রস্ততি নেয়ার নির্দেশনা দিয়ে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে শপথবাক্য পাঠ অনুষ্ঠান সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সফল করার জন্য আজ মঙ্গলবার বিকেলে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

জেলা প্রশাসক বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমে উজ্জীবিত সকল শ্রেনী পেশার মানুষ শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া নৈতিক দায়িত্ব। এটি আমাদের সকলের জন্য গৌরবের, সম্মানের। শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠানে স্মরনকালের সেরা জমায়েতের মাধ্যমে আমরা রাঙামাটিবাসী প্রমান করতে চাই, মুক্তিযুদ্ধ ও দেশপ্রেমে আমাদের ঐক্যর বহিঃ প্রকাশ। তিনি এজন্য আগামী ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসে শপথ বাক্য অনুষ্ঠানে সকলের অংশগ্রহণ ও সহযোগিতা কামনা করেন।

সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তাপস রঞ্জন ঘোষ, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ কামাল উদ্দিন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজমা বিনতে আমিন, প্রবীন সাংবাদিক সুনীল কান্তি দেসহ সরকার-বেসরকারী বিভিন্ন দপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, এনজিও, ক্রীড়া সংস্থার, ক্লাব, সংগঠনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।