রাঙামাটির লংগদুতে ধর্ষক আটক

Rangamatiরাঙামাটির লংগদুতে নয় বছরের এক কন্যা শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার দুই দিন পর মঙ্গলবার ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত মোটর সাইকেল চালক রুবেল হোসেনকে আটক করেছে লংগদু থানা পুলিশ। আটককৃত রুবেল(২৫) লংগদু উপজেলার বগাচতর ইউনিয়নের গাউচপুর এলাকার মানিক ব্যপারীর ছেলে। লংগদু থানা পুুলিশ ও ধর্ষিত শিশুর পারিবারিক সূত্র জানায়, শিশু ময়নার (ছদ্ম নাম) মামা মোঃ আলমগীর হোসেন তাকে বগাচতর ইউনিয়নের ধলুশিবির এলাকায় তার নানীর বাড়ীতে পাঠানোর জন্য গত ২৭ আগষ্ট সন্ধ্যায় জারুল বাগান ঘাটে নিয়ে যায়। সেখানে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল চালক রুবেল হোসেনকে ময়নার ঠিকানা বলে নানীর বাড়ীতে পৌছে দিতে বলে গাড়ী ভাড়া পঞ্চাশ টাকা দিয়ে মোটর সাইকেলে তুলে দেন। ওই মোটর সাইকেল চালক রুবেল গাউচপুর ফরেস্ট এলাকার আগর বাগানের কাছে পৌছলে সে গাড়ি থামিয়ে শিশুটিকে জোরপূর্বক রাস্তার পাশে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটির অবস্থা বেগতি দেখে ধর্ষক রুবেল শিশুটিকে রাস্তায় মুমুর্ষ অবস্থায় ফেলে রেখে মোটর সাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়।
এলাকার লোকজন রাস্তায় পড়ে থাকা শিশুটিকে উদ্ধার করে পরে তার নানীর বাড়ীতে পৌছে দেয়। এদিকে পরিবারের সদস্যরা ধর্ষনের ঘটনা জানতে পেরে ২৮ আগষ্ট খোঁজাখোজি করেও ওই মোটর সাইকেল চালককে খুঁজে পায়নি। সোমবার পুলিশ ধর্ষক মোটর সাইকেল চালক রুবেল হোসেনকে উপজেলার গাউচপুর এলাকা থেকে আটক করে।
লংগদু থানার অফিসার ইন চার্জ মোঃ মোমিনুল ইসলাম জানান, আটককৃত ধর্ষক রুবেল সে তার দোষ স্বীকার করেছে। এবং শিশুটির মামা মোঃ আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে থানায় নারী শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণ আইনে মামলা দায়ের করেছেন। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য শিশুটিকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
Loading...