রাঙামাটির সাপছড়ি শান্তিধাম বৌদ্ধবিহারে কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত

রাঙ্গামাটি সদরে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ২০ তম দানোত্তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (০৫ নভেম্বর) সদর উপজেলার সাপছড়ি ইউনিয়নের শান্তিধাম বৌদ্ধবিহারে দিনব্যাপী এ ধর্মীয় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর।

মুছা মাতব্বর বলেন, রাঙামাটি শহর হচ্ছে সম্প্রীতির মিলনমেলার শহর। এখানে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকলেই উৎসবমূখর পরিবেশে ধর্মীয় উৎসব পালন করে থাকে। পাহাড়ের শান্তিপ্রিয় ও ধর্মপ্রিয় জনগণের কথা চিন্তা করে সরকার সবসময় ধর্মীয় উপসনালয় নির্মানে গুরুত্ব দিয়ে আসছে। কিন্তু, একটি পক্ষ চায় না, পাহাড়ে উন্নয়ন হোক, সম্প্রীতির মিলনমেলা বসুক। তবুও সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রয়েছে। তিনি শান্তিধাম বৌদ্ধবিহারের অসমাপ্ত উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করার সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিহার অধ্যক্ষ ভদন্ত সুমনা জ্যোতি মহাথেরো, সাপছড়ি বিহার অধ্যক্ষ জয় বংশ মহাথেরো, সাপছড়ি ইউপি মেম্বার রিটন বড়ুয়া, বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি সঞ্জু চাকমা, সাধারণ সম্পাদক সাধন কুমার চাকমা, সদস্য সুপায়ন চাকমা, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ ইউসুফ প্রমুখ।

সকাল থেকে বিহার প্রাঙ্গণে বিভিন্ন ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান, পঞ্চশীল গ্রহণ, বুদ্ধ পূজা, অষ্ট পরিস্কার দান করা হয়। কঠিন চীবর দানোৎসব উপলক্ষে দায়ক-দায়িকাদের উদ্দেশ্যে ধর্মীয় দেশনা দেন বিহার অধ্যক্ষ ভদন্ত সুমনা জ্যোতি মহাথেরো। এসময় ভিক্ষুরা তাদের দেশনায় বুদ্ধের ধর্মীয় অনুশাসন মেনে জগতের সকল প্রাণীর কল্যাণে দায়ক-দায়িকাদের নিবেদিত থাকার আহবান জানান।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।