রাঙামাটির ৮ হত্যাকান্ডে জড়িত সন্ত্রাসী এলজিসহ বান্দরবানে আটক

রাঙামাটির বাঘাইছড়ির এই জীপ গাড়িতে ব্রাশ ফায়ার করে শসস্ত্র সন্ত্রাসীরা
রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৮ হত্যাকান্ডে জড়িত এক সন্ত্রাসীকে আটক করেছে যৌথবাহিনী। আটকর্কৃতের নাম রনজিত চাকমা (৩৫)। আটককৃত রনজিত চাকমা রাঙ্গামাটির পানছড়ি এলাকার সনজিত শান্তি চাকমার ছেলে।
পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাত নয়টার দিকে বান্দরবানের সদর উপজেলার রাজবিলা ইউনিয়নের একটি রাবার বাগানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জুমঘর থেকে তাকে আটক করে যৌথবাহিনী। এসময় তার কাছ থেকে অত্যাধুনিক ১টি এলজি রাইফেল উদ্ধার করা করে যৌথবাহিনী। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।
এই ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদুল ইসলাম বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌথবাহিনী তাকে আটক করে। সে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি সন্ত্রাসী হামলায় জড়িত,তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
আরো জানা গেছে, গত ৩ এপ্রিল জেলার নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার দোছড়ি সীমান্তের তুলাতলিতে র‌্যাবের সাথে বন্দুক যুদ্ধে রাঙামাটির বাঘাইছড়ির নির্বাচনোত্তোর ৮ হত্যাকান্ডে ১ জন নিহত হয়েছে। নিহতের নাম জ্ঞান শংকর চাকমা। তার বাড়ি রাঙামাটি জেলায় পৌর এলাকার জেল রোড এলাকায়, রাঙামাটিসহ অপর পার্বত্য জেলায় চাঁদা আদায়ে নেতৃত্ব দিয়ে আসছিল। এসময় ৭ টি অত্যাধুনিক এসএমজি, ৪৩৭ টি গুলি, ১১ খালি খোসা উদ্ধার করে র‌্যাব-৭।
প্রসঙ্গত, গত ১৮ মার্চ রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাচনের দায়িত্ব পালন শেষে নির্বাচনী সামগ্রী নিয়ে যাওয়ার সময় নয় মাইল নামক এলাকায় দুটি চান্দের গাড়ির উপর সন্ত্রাসীরা অতর্কিত ব্রাশ ফায়ার করলে করলে ৭ জন নিহত হন এবং ১৮ জন আহত হয়, পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো একজন মারা যান। এই হত্যাকাণ্ডের প্রেক্ষিতে নিরাপত্তা বাহিনী দৃষ্কৃতিকারীদের গ্রেফতারে তিন পার্বত্য জেলায় সাঁড়াশি অভিযান শুরু করে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।