রাঙামা‌টিতে হোটেল মোটেল খুললেও বন্ধ থাকবে পর্যটন স্পট

দীর্ঘ দুই মাসের বে‌শি সময় বন্ধ থাকার পর স্বাস্থ্য বি‌ধি মেনেই খুলেছে রাঙামা‌টি শহরের অ‌ধিকাংশ আবাসিক হোটেল মোটেল। তবে, করোনার বিস্তার রো‌ধে জনসমাগম এড়াতে বন্ধ থাকবে জেলার সব পর্যটন স্পট।

সী‌মিত পরিসরে জেলা শহরের অ‌ধিকাংশ আবাসিক হোটেল মোটেল র‌বিবার থেকে চালু হলেও পর্যটক‌বিহীন রাঙামা‌টি শহরে অর্থ‌নৈ‌তিক মন্দায় প্র‌তিকুল পরিবেশে আপাতত ঝু‌ঁকি নিতে চাইছেনা আবাসিক হোটেল মোটেলের অনেক মা‌লিক। প‌রি‌স্থি‌তি ভালো না হওয়া পর্যন্ত হরেক রকম খরচের কথা মাথায় রেখে হোটেল খুলে লোকসান গুনতে রা‌জি নন তারা।

জানা গে‌ছে, জেলা শহরে ছোট বড় মিলে ৫১টি আবাসিক হোটেল মোটেল রয়েছে। রাঙামা‌টি পর্যটন শহর এবং জেলার নৌপ‌থে ৬টি উপজেলার সাথে গুরুত্বপুর্ন যোগাযোগ থাকায় বছরের প্রায় সময় হোটেল মোটেলগু‌লিতে ব্যস্ততা থাকে। দেশে করোনা হানা দেওয়ায় বিগত দুইমাসের বে‌শি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে আবাসিক হোটেলগুলো। সেই সাথে বন্ধ হয়ে‌ যায় মা‌লিকপক্ষ থে‌কে শুরু করে হাজারো কর্মচারীর রু‌টি রু‌জির পথ। এরই ম‌ধ্যে ৩১ মে থে‌কে সী‌মিত প‌রিসরে সব কিছু খু‌লে দেওয়ার সরকা‌রি সিদ্ধান্তে জেলার হোটেল মোটেলগু‌লো চালুর প্রস্তু‌তি চলছে।

রাঙামা‌টি আবাসিক হোটেল মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ মঈন উ‌দ্দিন সে‌লিম জানান, স্থানীয় প্রশাসনের নির্দেশ পেয়ে গতকাল থে‌কে হোটেল মোটেল খোলা রাখার প্রস্তু‌তি নিয়েছে মা‌লিকপক্ষ। তবে, কর্তৃপক্ষ যাতে স্বাস্থ্য বি‌ধি মেনে হোটেল প‌রিচালনা ক‌রে, সেরকম নি‌র্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শহরের রিজার্ভ বাজারের হোটেল ম‌তি মহ‌লের স্বত্তা‌ধিকারী ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোঃ শ‌ফিউল আজম জানান, আমাদের কিছু নিয়‌মিত কাস্টমার আছে। যাদের মধ্যে সরকা‌রি চাকরীজী‌বি ও ব্যবসায়ী রয়েছে। মুলতঃ তাদের অনুরোধে প‌রি‌স্থি‌তি প্র‌তিকুল থাকার পরও হোটেল চালু করতে যা‌চ্ছি। মঙ্গলবার থেকে পুরোদমে হোটেল সেবা চালু করা হবে।

এ‌দিকে, সরকা‌রি নি‌ষেধাজ্ঞা থাকায় এখনই খুলছে না পর্যটন স্পটগু‌লো। সরকা‌রি বেসরকারী পর্যটনস্পট কর্তৃপক্ষের সা‌থে যোগাযোগ করে জানা গেছে, এখনই পর্যটনস্পট খুলে দিলে জনসমাগম ও করোনার বিস্তার ঠেকানো যাবে না। তাই সরকারের পরবর্তী সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত পর্যটনস্পট সমুহ বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।