রাঙ্গামাটিতে শুক্রবার শুরু হবে ফুরোমন ট্রেকিং এক্সপিডিশন

রাঙ্গামাটিতে ফুরোমন ট্রেকিং এক্সপিডিশন আয়োজনের সংবাদ সম্মেলন
রাঙ্গামাটির সবচেয়ে উচু পাহাড় ফুরোমনকে পর্যটকদের কাছে আকর্ষনীয় করে তুলতে ফুরোমন ট্রেকিং এক্সপিডিশন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।শুক্রবার সকালে সাপছড়ি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এই ফুরোমন ট্রেকিং এক্সপিডিশন শুরু হবে। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা এর উদ্বোধন করবেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড, বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের যৌথ উদ্যোগ ও রাঙ্গামাটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় ফুরোমন ট্রেকিং এক্সপিডিশন আয়োজন করা হচ্ছে।
এ উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কর্ণফুলি হল রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রেকিং এক্সপিডিশনের আদোপান্ত তুলে ধরেন বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের প্রতিনিধি মশিউর রহমান খন্দকার।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এই এক্সপিডিশনের উদ্দেশ্য হচ্ছে রাঙ্গামাটির সম্ভাব্য পর্যটন খাতের প্রচার ও প্রসার,পার্বত্য অঞ্চলের সংস্কৃতি, প্রকৃতির সংরক্ষন ও উন্নয়নসহ ফুরোমন পাহাড়কে ভ্রমনপিপাসুদের কাছে আকষর্নীয় হিসেবে তুলে ধরা। এতে আরো জানানো হয়, ফুরমোন থেকে শুধু রাঙ্গামাটি শহরের অপরুপ সৌন্দর্য্য নয়, চট্টগ্রাম শহরের মনোরম দৃৃশ্য দেখা যায়। এই ট্রেকিং এক্সপিডিশনে তিন পার্বত্য জেলা হতে ২১ জন এবং বাংলাদেশের অন্যান্য জেলা হতে ১২ জন মিলে ৩৩ জন সদস্য অংশ নিচ্ছে।
এদিন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা, ভাইস চেয়ারম্যান তরুন কান্তি ঘোষ, সদস্য পরিকল্পনা ড. প্রকাশ কান্তি চৌধুরী, জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল রেদওয়ান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট নজরুল ইসলাম, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শফিউল আজম ও বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের প্রতিনিধি মশিউর রহমান খন্দকার।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।