রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে আনা হলো অধ্যক্ষ জ্ঞানপ্রিয় মহাথের এর মরদেহ

বান্দরবানের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারের ৯ ম বিহারাধ্যক্ষ উ ঞানাসিগি (জ্ঞানপ্রিয়) মহাথের এর মরদেহ ধর্মীয় মর্যাদায় আজ শনিবার (১১ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে জেলা শহরের রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে নিয়ে আসা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুপুর একটার দিকে মরদেহ বিহারে নিয়ে আসা হলে শত শত বৌদ্ধ ধর্মানুসারী উপস্থিত ছিলেন। এসময় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, বোমাং রাজা উ চ প্রু চৌধুরী, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য ক্য এস মং’সহ রাজ পরিবারের সদস্য ও বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এসময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মপ্রান মানুষ এই ধর্মীয় গুরুর প্রতি ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং প্রার্থনায় মিলিত হন।

সূত্র জানা গেছে, গত ৫ই জুলাই রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ জ্ঞানপ্রিয় মহাথের হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে স্থানান্তর করা হয়। তিনি উচ্চ রক্তচাপ ডায়াবেটিসসহ নানা রোগে ভুগছিলেন, গতরাতে তার অবস্থার অবনতি হয় এবং সকালে তিনি মারা যান।

উল্লেখ্য, রেভা: উ ঞানাপিয়া মহাথের বোমাং সার্কেলের ঐতিহ্যবাহী রাজ পরিবার ১৩তম রাজা বোমাংগ্রী উ ক্যজসাই এর পুত্র প্রয়াত রাজকুমার সাদ্ উ মংচ প্রু এর সন্তান। তিনি ১৯৫৪ সালের ৭ জুলাই জন্মগ্রহন করেন। প্রথম দিকে চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার একাধিক বিহারে ৪ বছর বর্ষাবাস করেন তিনি। পরবর্তীতে ৬ বছর তিনি থাইল্যান্ডে ছিলেন।

চট্টগ্রামের সুপরিচিত বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের প্রাণ কেন্দ্র নন্দনকানন চিটাগং বুডিষ্ট টেম্পলে সর্বশেষ সূদীর্ঘ ২৩ বছর রেভা: উ ঞানাপিয়া (জ্ঞান প্রিয়) মহাথের অবস্থান করেন। গত ২৮ মে ২০২০ সালে বান্দরবান বোমাং সার্কেলের রাজা উ চ প্রু চৌধুরী রাজগুরু বিহারের নবম বোমাং রাজগুরু ও বিহারাধ্যক্ষ হিসাবে রেভা: উ ঞানাপিয়া মহাথেরকে দায়িত্ব প্রদান করেন। দেড় মাসের মাথায় তিনি পরলোক গমন করেন।

আরও পড়ুন
Loading...