রাজস্থলীকে ভিক্ষুক মুক্ত ঘোষণা করলেন জেলা প্রশাসক

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ.কে.এম মামুনুর রশিদ বলেছেন, বর্তমান সরকার ১৯৯৭ সালে ২ ডিসেম্বর পার্বত্যবাসীর শান্তির জন্য শান্তি চুক্তি করেছিলেন। তাই সারা দেশের ন্যায় পার্বত্য অঞ্চলেও উন্নয়নের দিক দিয়ে এগিয়ে নিতে সরকার বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম হাতে নিয়েছেন। তিনি আরো বলেন, দেশ দিনদিন উন্নতির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, তারই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর উৎক্ষেপন। যা নিয়ন্ত্রণ করবে পার্বত্য জেলা থেকে এবং এর সুফল পার্বত্যবাসীই ভোগ করবেন বেশি।সোমবার দুপুর ১২টা উপজেলা মিলনায়তনে রাজস্থলী উপজেলার জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান, কার্বারী, উপজেলা পর্যায়ে কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি, মানসম্মত শিক্ষা, দূর্নীতি দমনসহ বিভিন্ন সেবা মূলক কার্যক্রম ও উন্নয়ন মূলক বাস্তাবায়ন অগ্রগতি নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতিতে উপজেলাকে ভিক্ষুক মুক্ত ঘোষণাকালে তিনি এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার মোঃ সিরাজুল ইসলাম, রাজস্থলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ক্রইসাউ মারমা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুইহলাঅং মারমা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পুচিংমং মারমা, মহিলা এমপির প্রতিনিধি লংবতি ত্রিপুরা, ইউপি চেয়ারম্যান সুশান্ত প্রসাদ তঞ্চঙ্গ্যা। সভার পূর্বে উপজেলার ৩টি ইউনিয়নের ৮জন ভিক্ষুককে গবাদি পশু বিতরণ করেন। পরে উপজেলা সদরে ফ্রি ওয়াইফাই জোন উদ্বোধন করেন।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Rasel Khan Coxs বলেছেন

    ভাল

  2. Urmi Saima Aktar বলেছেন

    এমন উদ্যেগ যদি বান্দরবানে নিলে অনেক ভালো হতো

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।