রাজস্থলীতে টানা বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিপনি বিতান গুলোতে চলছে ঈদের কেনাকাটা

বাঙ্গালহালিয়া বাজারে ঈদ বিক্রয় উৎসবে কেনাকাটায় ব্যস্থ সময় কাটাচ্ছে ক্রেতারা
রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলায় ৩টি বাজারের মধ্যে রাজস্থলী ও ইসলামপুর বাজারে তেমন ঈদের আমেজ নেই বললেই চলে কিন্তুু ঐতিহ্যবাহী বাঙ্গালহালিয়া বাজারটি রাঙ্গুনীয়া ও কাপ্তাই এলাকার পাশ্ববর্তী হওয়ায় প্রচন্ড বৃষ্টির মধ্যে দিয়েও ঈদের বেচাকেনায় খুশি ব্যবসায়ীরা।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সকাল থেকে বাজারের বিপনি বিতান গুলোতে ক্রেতাদের উপছে পড়া ভিড়। বিশেষ করে বাঙ্গালহালিয়া বাজার ব্যবসায়ী কল্যান সমবায় সমিতি ক্রেতা সমাগমের জন্য বিশেষ উদ্যোগ ঈদ বিক্রয় উৎসব হাতে নেয়ায় প্রতিটি কাপড়ের দোকান গুলোতে মানসম্মত কাপড় তুলেছেন ব্যবসায়ীরা। বাঙ্গালহালিয়া বাজার ঘুরে দেখা যায় মার্কেট গুলোতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সমাগমে ভিন্নতা পরিলক্ষিত হচ্ছে। আলোক সজ্জা সহ নানা সাজসজ্জা সাজানো হয়েছে মার্কেটগুলো। বিভিন্ন পসরা সাজিয়ে ক্রেতাদের আকৃষ্ট করছে ব্যবসায়ীরা। রাখা হয়েছে লাকী কুপন আর আকর্ষনীয় পুরস্কারের ব্যবস্থা প্রতিটি মার্কেট থেকে ৪শত টাকার ঈদ সামগ্রী ক্রয় করলেই পাচ্ছেন একটি লাকী কুপন ফ্রি।
ইত্যাদি মার্কেট, তালুকদার মার্কেট, শওকত তালুকদার মার্কেট ইউনিট ১ ও ২, চোধুরী মার্কেট ইউনিট- ১ ও ২, ভাই ভাই মার্কেট, দত্ত মার্কেট গুলোতে কাপড়ের দোকান, জুতার দোকান, জুয়েলারী, মুদির মালামাল, খাবারের দোকান চাঙ্গা হয়ে উঠছে। বিভিন্ন কাপড়ের দোকানে তরুন তরুনীরা নতুন ডিজাইনের পোশাক ক্রয় করছে। বিশেষ করে নিজেদের মত সেলাই করে যারা পড়বে তারাই কেনাকাটা সারছেন।
প্রিয়া গার্মেন্টস এন্ড কসমেটিস দোকানের মালিক বিকাশ বিশ্বাস বলেন রমজান শুরু থেকে ক্রেতারা পরিবার পরিজন নিয়ে আসছেন পছন্দের কাপড় ক্রয় করতে। বিশেষ করে যারা ভীড় ঝামেলা পছন্দ করেন না তারাই বাজারে সকালে আসেন। পরিবার নিয়ে মার্কেটে আশা আবুল কালাম বলেন, ঈদের আগে বাজারে প্রচন্ড ভীড় থাকলে পছন্দের কাপড় কিনতে হিমশিম খেতে হয়, তাই সকালেই বাজারে এসেছি।
বাজার ব্যবসায়ী কল্যান সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ শামশুল আলম বলেন, অন্য বছরের চেয়ে এই বছর বাঙ্গালহালিয়া বাজারে ক্রেতা সমাগম বেশি। ব্যবসায়ীরাও উন্নতমানের কাপড় দোকানে তুলেছে দাম ও স্বল্প তাই ক্রেতাগণও খুশি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।