রিমান্ড শেষে ফের কারাগারে কেএনএফের ৫ সদস্য

NewsDetails_01

বান্দরবানের রুমা ও থানচি উপজেলায় সোনালী ও কৃষি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া সন্দেহভাজন কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) ৫সদস্যকে দুদিনের রিমান্ড শেষে আদালতে তোলা হলে শুনানি শেষে তাদের ফের কারাগারে পাঠিয়েছেন বিচারক।

আজ বুধবার (১২ জুন) দুপুরে পুলিশের কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আসামিদের কারাগার থেকে প্রিজনভ্যানে করে বান্দরবান চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. নুরুল হক।

NewsDetails_03

বান্দরবান আদালতের জিআরও বিশ্বজিৎ সিংহ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গ্রেপ্তার ৫জন আসামি জোহান বম (৪৫), লাল হোম লিওন বম (৩৭), লাল রাম লিয়াং বম (৪০) এবং রেমথাং লিয়ান বম (৩৭), সানজু খুম বম (৩৮) কে দুদিনের রিমান্ড শেষে দুপুরে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আসামিদের ফের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

প্রসঙ্গত: গত ২ এপ্রিল রাতে বান্দরবানের রুমা সোনালী ব্যাংকে হামলা, পুলিশ-আনসারের অস্ত্র লুট এবং পরে ৩ এপ্রিল দুপুরে থানচি উপজেলার সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকে ডাকাতি, হামলা ও টাকা লুটের ঘটনা ঘটে। এদিকে এসব ঘটনায় আসামিদের ধরতে বান্দরবানে শুরু হয়েছে যৌথবাহিনীর অভিযান। অভিযানে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব), পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), আনসারের সঙ্গে সঙ্গে অংশ নিয়েছে সেনাবাহিনী।

এদিকে ঘটনার পর রুমা থানায় ১৩টি, থানচি থানায় চারটি, বান্দরবান সদর থানায় একটি এবং রোয়াংছড়ি থানায় তিনটিসহ মোট ২১টি মামলা হয়। চলমান এই অভিযানে এ পর্যন্ত কেএনএফের ৯৬ জন সদস্য ও সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে যৌথবাহিনী।

আরও পড়ুন