রুমায় উন্নয়ন কাজে জন প্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত রেখে কাজ করার আহ্বান

রুমা বম কমিউনিটি সেন্টারে ‘স্যাপলিং কর্মসূচি অবহিতকরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান অংথোয়াইচিং মারমা
জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ততা না রেখে কাজ করায় বিগত বছরগুলোতে ইউএনডিপি‘র কার্যক্রমে কৃতিত্ব দেখাতে পারেনি। তাদের কার্যক্রম ওঠে যাবার পর পাড়া-পাড়ায় চার লক্ষ টাকা দিলেও এখন সমালোচনা-ই বেশি করে উঠে এসেছে। কারণ ইউএনডিপি বিগত ছয়-সাত বছর কাজ করে তারা কোনো বাজারজাত ও খাদ্য নিরাপত্তা ব্যবস্থা করতে পারেনি। তাই কোনো উন্নয়ন সংস্থা তাদের কার্যক্রম গতিশীল করতে স্থানীয় প্রশাসন ও জন প্রতিনিধিদের সাথে সমন্বয় রেখে কাজ করতে হবে। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় বম কমিউনিটি সেন্টারে ‘স্যাপলিং কর্মসূচি অবহিতকরণ’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান অংথোয়াইচিং মারমা এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, দুর্গম কোনো পাড়ায় স্যানিটেশন কাজ করতে গেলে পানির ব্যবস্থা আছে কিনা তা দেখা জরুরি। ঠিক সেভাবে পানি সরবরাহ করতে গেলেও নিরাপদ বা ফিল্টারিং হতে হবে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ শরিফুল হকের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ও অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা: মোহাম্মদ ফয়সাল আহমেদ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রতন বিকাশ চাকমা, রুমা প্রেস ক্লাবের সভাপতি শৈহ্লাচিং মারমা, কৈননীয়া ওয়াটশান প্রকল্পের ব্যবস্থাপক রোজারিও ও পিসিএসপি‘র সাবেক ব্যবস্থাপক বরেন ত্রিপুরা।
কারিতাসের উপজেলা সমন্বয়কারি লাটেন সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্যাপলিং কর্মসূচির আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক ডা: অংসাজাই মারমা। এর আগে প্রোজেক্টরের মাধ্যমে খাদ্য নিরাপত্তা ও উন্নত পুষ্টি কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষ্যে“ স্যাপলিং কর্মসূচি” পরিচিতি নিয়ে উপস্থাপন করেন প্রকল্প ব্যবস্থাপক(পিএম)সুভাসএ, গমেজ। সরকারি-বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তা, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও হেডম্যানরা উপস্থিত এই কর্মসূচি পরিচিতি অনুষ্ঠানের অংশ নেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।