রুমায় ঝুঁকিপূর্ন শিশুদের কেইস কনফারেন্স

আদিবাসী শিশু (ফাইল ছবি)
কোনো অনাথ ও পথশিশু নিরক্ষরমুক্ত করা সম্ভব।যদি সরকারের সরকারের ঘোষিত পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনাথ অাশ্রম ও এতিমখানাগুলোতে সরকারি ক্যাপিটেশন মজুরি পর্যাপ্ত পরিমাণে বাড়িয়ে দেয়া হয়। এতে অসংখ্য পথশিশু ও অনাথ ছেলেমেয়েরা বিদ্যালয়মুখি হয়ে পাঠ গ্রহণের সুযোগ তৈরি হবে। দেশ তথা দেশের সুযোগ বঞ্চিত মানুষেরা-ই উপকৃত হবে। বৃহস্পতিবার সকালে বান্দরবানের রুমা উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয়ে আয়োজিত ঝুঁকিপূর্ন শিশুদের কেইস কনফারেন্সে বক্তারা এসব অভিমত ব্যক্ত করেন।
উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুচ ছালামের সভাপতিত্বে এ কনফারেন্সের বক্তব্য দেন প্রবীণ উন্নয়ন কর্মী ও রুমা চাইল্ড স্পন্সরশীপ প্রোগ্রামের ব্যবস্থাপক লালদুহসাং বম, রুমা অগ্রবংশ অনাথালয়ের পরিচালক উ:নাইন্দিয়া থের, এমসিএসপি‘র ব্যস্থাপক সাইলুকথাং বম, ক্ষেমাজন ত্রিপুরা ও মাহাইসহ উন্নয়ন কর্মী, সুশীল সমাজের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুচ ছালাম কন্ফারেন্সে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার চিঠির আলোকে জানান, দেশে টেকনাফ থেকে তেতুলিয়া কোন স্থানে কোথাও পথশিশু ও অনাথ ছেলেমেয়েরা না খেয়ে থাকবেনা। এসব শিশুদের নিয়ে কাজ করতে হবে। যাতে তারা থাকার স্থান পেয়ে বিদ্যালয়মুখি সুযোগ হয়। বিষয়টি তুলে ধরলে উপস্থিত সুধীরা ওইসব অভিমত ব্যক্ত করেন। পরে পথশিশু ও অনাথদের সেবায় কাজ করার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হন সংশ্লিষ্টরা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।