রুমায় ধর্ষণের চেষ্টা : এক যুবতি আহত

বান্দরবানের রুমায় পাইন্দু ইউনিয়নের বুধবার বিকালে মুলপি পাড়ার পাশ্ববর্তী এলাকায় এক যুবতীকে (১৯) ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়। আহত যুবতিকে বুধবার সন্ধ্যায় রুমা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
ওই যুবতির বড়ভাই লারামকিম বম জানান বিকালে কাজ করতে জুমে যায় সে। রাস্তায় ওৎ পেতে থাকা খোয়ইচেও বমের ছেলে লালটানসাং বম (৩৩) ধর্ষনের উদ্দেশে হামলা চালালে আমার বোন চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে যখন পৌছি, ততক্ষনে ধস্তাধস্তি ও মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তার পাশে লম্পট লালত্লাসাং বমকে দাড়িঁয়ে থাকতে দেখতে পায়। কি হয়েছে আমার বোনের একথা জানতে চাওয়া হলে লালত্লাসাং বম আমাদের জানায়,তোমার বোনকে সাপের কামড় থেকে রক্ষা করতে চেষ্টা করছিলাম, একথা বলে সে পালিয়ে যায়। এরপর ছোট বোনকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়।
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডা: দেবাশীষ জানান, ভিক্টিমকে প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়নি। তবে ভিক্টিমের মাথায় জখমের আলামত আছে। যেখান থেকে অনবরত রক্ত ঝড়ছিল।
ভিক্টিমের ভাষ্য মতে, তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে আর্তচিৎকার করে ইজ্জত রক্ষার চেষ্টা চালায়। এতে উভয়ে ধস্তাধস্তি হয়।এক পর্যায়ে আমাকে দা দিয়ে আঘাত করলে অজ্ঞান হয়ে পড়ি।
রুমা থানার এএসআই মোহাম্মদ খায়রুল ইসলাম জানান এঘটনা সম্পর্কে সব খবর নেয়া হয়েছে। ভিক্টিম বা তার কোন আত্মীয় মামলা করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আবার তাদের মধ্যে সামাজিক ভাবে সালিশি বিচার করতে চাইলে তাদের ব্যাপার বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।