রেমাক্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বেতন পান না আট মাস

remakree-high-schoolবান্দরবান জেলার থানচি উপজেলার দুর্গম রেমাক্রী ইউনিয়নের এক মাত্র মাধ্যমিক বিদ্যালয় ‘রেমাক্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আট মাস যাবত কোনো ধরনের বেতন পাচ্ছেন না । বেতন না পাওয়ায় শিক্ষক-কর্মচারীরা মানবেতর জীবন যাপন করছে, ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান । আর এসব বিষয় উঠে এসেছে বিদ্যালয়ের ত্রৈমাসিক সভায়।
রেমাক্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিনিডিক্ট ত্রিপুরা বলেন, বেতন না পাওয়ায় এরইমধ্যে কয়েকজন শিক্ষক চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন । বেতন না পাওয়ায় কর্মরত শিক্ষকরা আট মাস ধরে মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তিনি আরো বলেন, আট মাসে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন বকেয়া রয়েছে ৫ লক্ষ ৮৪ হাজার ১৫০ টাকা। শ্রেণী কক্ষে নিয়মিত সুষ্ঠু পাঠদান অব্যাহত রাখতে জরুরি ভিত্তিতে আরো তিনজন নতুন শিক্ষক প্রয়োজন বলে জানান প্রধান শিক্ষক ।
ত্রৈমাসিক সভায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বকুলি মারমা, পরিচালনা পর্ষদের সদস্য সচিব ও তিন্দু ইউপি চেয়ারম্যান মংপ্রুঅং মারমা, আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি মালিরাং ত্রিপুরা ।
সংশ্লিষ্টরা জানান, থানচি উপজেলা পরিষদের স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) ২০১৪ সালে ১৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে তিন কক্ষ বিশিষ্ট বিদ্যালয় ভবন নির্মাণ করে। ২০১৫ সালে বিদ্যালয়ের ৫ জন শিক্ষক ও ১ জন দপ্তরী নিয়োগ করে বিদ্যালয়টি অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত চালু করা হয়।
থানচি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা বলেন, আগামি ডিসেম্বরের মধ্যে উপজেলা পরিষদ থেকে দুই লক্ষ টাকা অনুদান দেয়া হবে।
thanchi-picএছাড়াও শিক্ষক কর্মচারীদের বেতন-ভাতা জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী দুই লক্ষ টাকা, উপজেলা চেয়ারম্যান দুই লক্ষ টাকা, রেমাক্রী ইউপি চেয়ারম্যান এক লক্ষ টাকা, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঞ্চাশ হাজার টাকা, তিন্দু ইউপি চেয়ারম্যান এক লক্ষ ও পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রী’র প্রতিনিধি রনি পঞ্চাশ হাজার টাকা মোট সাত লক্ষ টাকা প্রাপ্তি সাপেক্ষে ব্যয় মিটানো হবে বলে আলোচনা সভায় মত দেন বক্তারা ।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন রেমাক্রী ইউপি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উচমং মারমা, ৪,৫ও ৬ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত সদস্য মেপ্রু মারমা, ৪নং ওয়ার্ডে সদস্য লাইথাং খুমী প্রমূখ।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Khemajon Tripura বলেছেন

    well decision.

  2. Jahir Force বলেছেন

    এর জন্যই রেমাক্রি যাওয়া নিষেধ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।