রোয়াংছড়িতে পাহাড়ী কিশোরীকে ধর্ষণে চেষ্টার অভিযোগে যুবক আটক

বান্দরবানের রোয়াংছড়ি উপজেলায় কাইন্তারমুখ পাড়া এলাকায় আদিবাসী কিশোরীকে ধর্ষণে চেষ্টার অভিযোগে মো: রাকিব ইসলাম (১৯) নামে এক যুবককে শুক্রবার দুপুরে একই এলাকা থেকে আটক করেছে পুলিশ। গত (৩ মার্চ) মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, বান্দরবানের ঠিকাদার উজ্জ্বল দাশ এর নির্মানাধীন বান্দরবান-রোয়াংছড়ি সড়কের কাইন্তারমুখ পাড়া হতে বৈদ্য পাড়া যাওয়ার রাস্তা নির্মাণের কাজে প্রায় দুই মাস যাবত শ্রমিক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন রাকিব। সে পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলায় ভরনপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড দক্ষিণ আদমপুর গ্রামের মো: মুকসেদ ইসলামের ছেলে।

কাইন্তারমুখ পাড়া কারবারী মারমা বলেন, গত মঙ্গলবার রাতে ১০টা দিকে কিশোরীটি পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী নুউ প্রু মারমাকে সঙ্গী হিসেবে নিয়ে শৌচাগারে যায়। এ সময় ওঁৎ পেতে থাকা রাকিব ওই কিশোরিদের ভয় ভিতি প্রদর্শন করে এক কিশোরীকে শৌচাগারের পাশে থেকে অন্যত্র নিয়ে গিয়ে ধর্ষণে চেষ্টা করেন। পরে গ্রামবাসী মিলে সামাজিক ভাবে বিচার করে অভিযুক্ত রাকিবকে ৪০ হাজার টাকার জরিমানা দিয়ে মিমাংসা করেন।

এই কিশোরীর বাবা আ প্রু মং মারমা বলেন, আমরা গরীব ও দিন মজুরী করে খায় এবং আর্থিক অবস্থা ভালো না থাকায় সামাজিক বিচারে যা করছে, সে ভাবে মেনে নিয়েছিলাম। তারপরও অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পুলিশ ব্যবস্থা গ্রহণ করায় ধন্যবাদ জানায়।
রোয়াংছড়ি থানার ওসি এনামুল হক বলেন, কিশোরীকে ধর্ষণে চেষ্টার সংবাদ পেয়ে আসামিকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনা আরো জড়িত থাকলে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়নি।

আরও পড়ুন
Loading...