লংগদুতে আটক জামাতের ৭ নারী কর্মীর শুনানী পহেলা এপ্রিল

লংগদুতে আটক জামাতের ৭ নারী কর্মী
রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় আটক জামাতের সাত নারী কর্মীর শুনানী হবে চলতি বছরের পহেলা এপ্রিল, এমন আদেশ প্রদান করেছে বিজ্ঞ আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে রাঙামাটির অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাবরিনা আলীর আদালতে তোলা হলে বিজ্ঞ আদালত এ আদেশ প্রদান করে।
বিষয়টি নিশ্চিত করে লংগদু থানার সহকারী পরিদর্শক (এসআই) ও মামলাটির আইও মো. মহিউল ইসলাম জানান, পুলিশ বাদী হয়ে নাশকতামূলক পরিকল্পনার অভিযোগ এনে ওই নারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। মঙ্গলবার লংগদু থেকে এনে তাদের রাঙামাটি চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলে পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন এবং আসামী পক্ষ জামিনের আবেদন জানালে বিজ্ঞ বিচারিক আদালত চলতি বছরের পহেলা এপ্রিল পরবর্তী শুনানীর দিন ধার্য করে অভিযুক্তদের কারাগারে প্রেরণের নিদের্শ প্রদান করে।
২৬মার্চ সোমবার সকালে লংগদু উপজেলার মুসলিম ব্লক এলাকার রাবেতা মডেল হাই স্কুলের শিক্ষক ওসমান মাস্টারের বাড়িতে মহান স্বাধীনতা দিবসে নাশকতামূলক পরিকল্পনা করার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে পুলিশ।
আটকৃতরা হলেন, কুমিল্লা জেলার ব্রাক্ষনপাড়ার শাহানাজ (২৭), রাঙামাটি শহরের আমানত বাগ এলাকার মাহমুদা (১৯), চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়ার সদিপাড়ার মিফতাহুল জান্নাত (২১), লংগদু উপজেলার মুসলিম বøগ এলাকার ফাতেমা আক্তার মুন্নী (৩৮), ঢাকার খামার বাড়ি ফার্মগেট এলাকার নাছিমা আক্তার (৩০), শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া থানার বৈশাখি পাড়ার তাহসিনা ফাতেমা (২৪) এবং চট্টগ্রাম জেলার চান্দগাঁও থানার ঘাসিয়া পাড়ার সাদিকা (২৫)।
তারা সবাই ইসলামিক ছাত্রী সংস্থা ও জামায়াতের সক্রিয় সদস্য বলে জানায় পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে বেশকিছু সাংগঠনিক বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।