লংগদুতে ক্ষতিগ্রস্থ ২১২ পরিবার : ঘটনায় এ পর্যন্ত আটক ১২জন

রোবববার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে করেছেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা,সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার,
রাঙামাটির লংগদুতে মোটর সাইকেল চালক নয়ন হত্যার জেরে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ২১২ পরিবার ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, অন্যদিকে হামলা ও অগ্নি সংযোগের ঘটনায় এ পর্যন্ত আটক করা হয়েছে ১২জনকে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার পর লংগদু থানায় তিনশ জনকে আসামী করে দায়েরকৃত মামলায় রোববার সকালে ৩ জন ও বিকালে আরো ২ জনকে আটক করেছে লংগদু থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন,মো: আলমগীর ও রহিম। সকালে আটককৃতরা হলেন শাহ আলম,আব্দুর রহমান ও আব্দুল হালিম। এ পর্যন্ত মোট ১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন,লংগদু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোমিনুল ইসলাম। এই মামলায় ১৫ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। পাহাড়ি গ্রামে অগ্নি সংযোগের ঘটনায় বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া লোকজন ফিরতে শুরু করেছে। ফিরে আসা লোকজনের জন্য প্রশাসন ২টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলেছে। আশ্রয় কেন্দ্রে আসার লোকজনকে খাদ্য সহ অন্যন্য সহায়তা দিচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন ও সেনা বাহিনী।
অতিরিক্ত দায়িত্বরত লংগদু উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম জানান, উপজেলা প্রশাসন এ পর্যন্ত ২১২ টি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সনাক্ত করা হয়েছে।
এদিকে, জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার এ এস এম রিয়াদ হাসান গৌরব স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে,জেলা প্রশাসনের আশ্বাস পেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো তাদের আবাসস্থলে ফিরে আসছে এবং কিছু পরিবার তিনটিলা বনবিহারে আশ্রয় নিয়েছে। ।ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারসমুহের জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ৩০ মেট্রিক টন চাল,নগদ ৬০ হাজার টাকা এবং ৫শটি কম্বল বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া তিনটিলা বনবিহারে আশ্রয়গ্রহনকারী ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় খাদ্য শস্য প্রদান করা হচ্ছে।
এদিকে, রাঙামাটি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাফিউল সারোয়ার জানান, গুনবালা চাকমার নিহত হয়েছে তার পরিবারের এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে তার পরিবার পুলিশকে কিছু আলামত দিয়েছে তা এখন তদন্ত ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সনাক্ত করা হবে ও পরবর্তীতে বুঝা যাবে গুনবালা চাকমার মৃত্যু হয়েছে কিনা।
অপরদিকে,পাহাড়িদের বাড়ি ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রাঙামাটি পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান জানান, আজ রবিবার আরো ৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, এ নিয়ে এ পর্যন্ত ১২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।
অপরদিকে, রোবববার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে করেছেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা,সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার,রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা।
রাঙামাটির লংগদু’তে পাহাড়িদের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনার প্রতিবাদে আগামীকাল ৫ জুন সোমবার ভোর পাঁচটা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত রাঙামাটি জেলায় সড়ক ও নৌপথ অবরোধের ডাক দিয়েছে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)। সংগঠনের রাঙামাটি জেলা ইউনিটের পক্ষ থেকে গনমাধ্যমে দেয়া এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।
অর্ধবেলা সড়ক অবরোধ চলাকালে দূর পাল্লার সকল যানবাহন ও নৌ পরিবহন (লঞ্চ-ট্রলার) না চালানোর জন্য ইউপিডিএফ এর পক্ষ থেকে মালিক ও চালকদের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন
2 মন্তব্য
  1. Priotosh Barua বলেছেন

    গাছ কেটে পানি দিয়ে লাভ কি?

  2. কি করে বলবো তোকে বলেছেন

    আটক করলে কিছুই হবে না ২দিন পরে আঙ্গুল তুলে পুলিশ ক্যাম্প থেকে বেরিয়ে আসবে

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।