লামায় অগ্নিকান্ডে ৪টি দোকান ভস্মীভূত : ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি

লামায় অগ্নিকান্ডে ভস্মিভূত দোকান
বান্দরবানের লামা উপজেলায় অগ্নিকান্ডে ৪টি দোকান পুড়ে সম্পূর্ণ ছাই হয়ে গেছে। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে উপজেলার সরই ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি ক্যয়াজুপাড়া বাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে নগদ টাকাসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয় বলে দাবী করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসাযীরা। একটি চা দোকানের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানা গেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, কেয়াজুপাড়া বাজারের প্রবেশ মুখে ব্রীজ সংলগ্ন নূরুল ইসলাম প্রকাশ বৈদ্যর চায়ের দোকানের চুলা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৩টার দিকে আগুন জ্বলে উঠে। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা আশপাশের দোকানগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় স্থানীয় পুলিশ সদস্য, জনসাধারন ও ব্যবসায়ীরা এক ঘন্টা আপ্রাণ চেষ্ঠা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। ততক্ষণে আছাফুর রহমানের দর্জির দোকান, নুরুল ইসলামের চায়ের দোকান, মেনরুং মুরুংয়ের কীটনাশকের দোকান ও গিয়াস উদ্দিনের মুদি দোকানে সম্পূর্ণ আগুনে পুড়ে যায়।
লামা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কর্মীরা বলেন, উপজেলা সদর থেকে সরই ক্যয়াজুপাড়া বাজারের দূরত্ব ২৩ কিলোমিটারেরও বেশি। এছাড়া দুর্গম পাহাড়ি এলাকা হওয়ায় ঘটনাস্থলে পৌঁছতে সামান্য বিলম্ব হয়। তবে কোন ধরণের অবহেলা ছিলনা ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী মেনরুং মুরুং জানান, দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় দোকানের যাবতীয় মালামাল রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। এতে চার ব্যবসায়ীর প্রায় ৩০ লাখ টাকার মত ক্ষতি হয়েছে।
অগ্নিকান্ডের সত্যতা নিশ্চিত করে সরই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ফরিদ উল আলম বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত প্রতি ব্যবসায়ীদেরকে পরিষদের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান করা হবে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।