লামায় এগ্রো ইকোলজি ফোরামের সভা

বান্দরবানের লামা উপজেলায় কারিতাস এগ্রো ইকোলজি ফোরামের ষন্মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ফোরামের সভাপতি নূর-এ-জান্নাত রুমি সভাপতিত্ব করেন। সভায় উত্তাপিত কার্যক্রমের উপর সুপারিশ/ পরামর্শ ও মতামত প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন- উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রতন কুমার দেব, এনজেড একতা মহিলা সমিতির সাবজেক্ট মেটার কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা জুয়েল মজুমদার, মৎস্য কর্মকর্তা রাশেদ পারভেজ ও প্রেসক্লাব সভাপতি প্রিয়দর্শী বড়–য়া। সভায় নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি বলেন, কার্যক্রম শুধু খাতা কলমে সীমাবদ্ধ থাকলে হবেনা, গ্রহণকৃত কাজগুলো সাথে মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন করলে জনগণ উপকৃত হবে। তাই কারিতাসের কর্মকর্তা কর্মচারীদেরকে প্রকল্প বাস্তবায়নে আন্তরিকতার সাথে কাজ করার জন্য আহবান জানান।
সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে বান্দরবান জেলা এগ্রো ইকোলজি ফোরামের রিপোর্টিং, মনিটরিং এন্ড রিচার্স বিষয়ক জুনিয়ার কর্মসুচী কর্মকর্তা ফরহাদ আজিম বলেন, কারিতাস ১৯৯১ সনে উদ্যান উন্নয়ন প্রকল্প, ২০১০ সন থেকে ২০১৭ সন পর্যন্ত খাদ্য নিরাপত্তা প্রকল্পের মাধ্যমে এলাকার উন্নয়ন করেছে। এ বছরের জানুয়ারী থেকে ফ্রান্স সরকারের অনুদানে প্রমোশন অব এগ্রো ইকোলজি প্রকল্প-সিএইচটি শুরু হয়। এ প্রকল্পের মাধ্যমে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে পরিবেশ বান্ধব কৃষি চর্চা করে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও ইকোলজি এবং পরিবেশ সুরক্ষায় এলাকাবাসীর অংশগ্রহনের লক্ষে কাজ শুরু করেছে।
এগ্রো ইকোলজি প্রকল্পের উপজেলা মাঠ কর্মকর্তা ও ফোরামের সদস্য সচিব মামুন সিকদার মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে বিগত ৬ মাসে প্রকল্পের অগ্রগতি তুলে ধরে বলেন, উপজেলার একটি পৌরসভার ৫ পাড়ার ৮৬ পরিবার, ফাঁশিয়াখালী ইউনিয়নের ৬ পাড়ার ১০৪ পরিবার ও রুপসীপাড়া ইউনিয়নের ১৪ পাড়ার ২৬০ পরিবার মিলে সর্বমোট ৪৫০ পরিবারকে প্রকল্পের আওতাভুক্ত করে পরিবেশ প্রতিবেশ জলবায়ু পরিবর্তন, টেকসই কৃষি উৎপাদন, পাহাড়, নদী, খাল, বিল, মাটি, বালু, পাথর, বনজ সম্পদ, মৎস্য ও পশু-পাখিসহ জীববৈচিত্র সংরক্ষন বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে কাজ করছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।