লামায় করোনা সন্দেহে ২ জনের নমুনা সংগ্রহ

করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য বান্দরবানের লামা উপজেলায় সন্দেহভাজন ২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এরা হলেন, পৌর এলাকার লামামুখ গ্রামের বাসিন্দা মো. হুমায়নের ছেলে মো. ফারুক ও মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মো. রাশেদ।

আজ শনিবার (১১এপ্রিল) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক তাদের নমুনা সংগ্রহ করেন। এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি ও থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. মিজানুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সুত্র জানায়, গত ২৫ মার্চ থেকে লামা উপজেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হলে মানছে না সাধারণ মানুষ। প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রতিনিয়ত চোরাই পথে উপজেলায় ঢুকে পড়ছে মানুষ। এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার নারায়নগঞ্জ থেকে মো. ফারুক ও মো. রাশেদ পৌরসভা এলাকার লামামুখস্থ বাড়িতে আসে।

নমুনা সংগ্রহের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক বলেন, নারায়ণগঞ্জ ফেরত ২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে নমুনাগুলো পরীক্ষার জন্য ঢাকা আইইডিসিআর সেন্টারে পাঠানো হবে।

তিনি আরো বলেন, ইতি পূর্বে উপজেলায় ২৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়ায় এবং কোন লক্ষণ দেখা না যাওয়ায় তাদের অবমুক্ত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি বলেন, নারায়ণগঞ্জ ফেরত দুই জনের বাড়ি লাল পতাকা দিয়ে চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে। আগামী ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত ওই দু’জনের পরিবারের লোকজনকে বের না হওয়ার পাশাপাশি কেউ যেন তাদের বাড়িতে না ঢুকে সে বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়।

আরও পড়ুন
Loading...