লামায় গাইড বই কিনে না দেয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

গাইড বই কিনে না দেওয়ায় বান্দরবানের লামা উপজেলায় মা বাবার সাথে অভিমান করে সুমি ত্রিপুরা (১৫) নামের এক স্কুল ছাত্রী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে মারা যান তিনি। উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের রামগতি ত্রিপুরা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। সুমি ত্রিপুরা রামগতি ত্রিপুরা পাড়ার বাসিন্দা ক্লেমেন ত্রিপুরার মেয়ে ও ফাঁসিয়াখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

সূত্র জানায়, কিছুদিন আগে থেকে সুমি ত্রিপুরা গাইড বই কিনে দেওয়ার জন্য মা বাবার সাথে বায়না ধরে। বেঁধে দেয়া সময়ের মধ্যে বই কিনে না দিলে গত ৪ ফেব্রুয়ারী সুমি ত্রিপুরা অভিমান করে বিষপান করেন। পরে স্বজনেরা তাকে উদ্ধার করে কাছাকাছি কক্সবাজার জেলার চকরিয়া মালুমঘাট খ্রীস্টান মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। এক পর্যায়ে বুধবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সুমি ত্রিপুরা।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো.জাকের হোসেন মজুমদার বলেন,ঘটনাটি খুবই দু:খ জনক।

এ বিষয়ে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন,বিষপানে স্কুল ছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনা শুনেছি। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন
Loading...