লামায় জিপগাড়ি খাদে পড়ে শিক্ষকসহ ১৫ যাত্রী আহত

লামায় দূর্ঘটনায় পতিত জিপগাড়ি
বান্দরবানের লামা উপজেলায় একটি যাত্রীবাহি জিপ গাড়ি পাহাড়ি খাদে পড়ে ১৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। আজ রবিবার বিকালে লামা-ফাঁসিয়াখালী সড়কের চারমাইল নামক স্থানে এ দূর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষনিকভাবে আহত পাঁচ যাত্রীর নাম পাওয়া গেছে। এরা হলেন-উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জাবেদ মীরজাদা, ফাইতং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সুইচিং মার্মা, সালাহ উদ্দিন, সোহেল কবির ও শফিউল আলম, অন্যদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, লামা থেকে একটি যাত্রীবাহি জিপ গাড়ি (গাড়ি নং-বগুড়া ল ৬৮) রবিবার বিকাল ৩টার দিকে চকরিয়া উপজেলায় যাওয়ার সময় গাড়িটি সড়কের চার মাইল নামক স্থানে পৌঁছলে চালক নিয়ন্ত্রণ হারায়। এতে গাড়িটি গভীর খাদে পড়ে গেলে উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা ও শিক্ষক সহ ১৫ জন আহত হন। এদের মধ্যে ৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। আহতদেরকে উদ্ধার করে কাছাকাছি চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও বেসরকারী জমজম হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। দূর্ঘটনার পর গাড়ি চালক মো. জাহাঙ্গীর ও হেলফার পালিয়ে যায়।
জিপগাড়ি খাদে পড়ে ১৫ যাত্রী আহত হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।