লামায় ত্রাণ পেলো ২ হাজার ৭শ খেটে খাওয়া মানুষ

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে গত মঙ্গলবার থেকে বান্দরবানের লামা উপজেলাকে লক ডাউন করে দেয় স্থানীয় প্রশাসন। এতে গৃহবন্দি হয়ে পড়ে চরম দুর্ভোগে পড়েন উপজেলার একটি পৌরসভা ও সাতটি ইউনিয়নের খেটে খাওয়া মানুষগুলো। ঠিক তখনিই এসব মানুষের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় ত্রাণ বিতরণের উদ্যোগে নেয় বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ, দেয়া হয় ত্রাণ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, লামা উপজেলার খেটে খাওয়া ২ হাজার ২৫০পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু, পেয়াজ, তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দেওয়া হয়েছে। সেই সাথে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল ও পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলামের প্রচেষ্টায় ডাল, তেল, সাবান সহ নিত্য প্রয়োজনীয় আরো কিছু ত্রাণ সামগ্রী যুক্ত হয়। পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের মাধ্যমেও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে আরো প্রায় সাড়ে ৪শ পরিবারের মাঝে দেয়া হয় ত্রাণ। নির্দিষ্ট দূরুত্ব বজায় রেখে এ ত্রাণ দেয়া হয়।

আজ শনিবার (২৮মার্চ) বিকাল থেকে বাড়ি বাড়ি গিয়ে এ ত্রাণ বিতরন শুরু করেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল, নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মজনুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ প্রমুখ।

ত্রাণ পেয়ে খুশি খেটে খাওয়া মানুষগুলো। ত্রাণ বিতরণকালে সবাইকে করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য লক ডাউন মেনে চলার পাশাপাশি জন সমাবেশ এড়িয়ে চলাসহ স্বাস্থ্য সম্মত পরামর্শ মেনে চলার আহবান জানান প্রশাসনের কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।