লামায় দানোত্তম কঠিন চীবর দান শুরু

লামামুখ বণাশ্রম বৌদ্ধ বিহারে দানসভায় ধর্মদেশনা করছেন ভদন্ত প্রজ্ঞারত্ন থেরো
বান্দরবানের লামা উপজেলায় শুরু হয়েছে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের দানোত্তম কঠিন চীবর দান। তিন মাস বর্ষা বাসের পর গত ২৫ অক্টোবর থেকে উপজেলার বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারগুলোতে এ দান শুরু হয়।
এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার রুপসীপাড়া ইউনিয়নের দরদরি সুনন্দ বৌদ্ধ বিহারাধ্যক্ষ শ্রীমৎ ভদন্ত প্রজ্ঞাশ্রী মহাথেরো মহোদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দান সভায় প্রধান দেশক ছিলেন,কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার উত্তর নলবিলা শীলরক্ষিত প্রজ্ঞাসার বিমুক্তি বনবিহারের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ ভদন্ত প্রজ্ঞারত্ন থেরো। দান সভায় বিশেষ দেশকের বক্তব্য রাখেন, লামামুখ শ্মশানভুমি তপোবন বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের আচার্য্য শ্রীমৎ ভদন্ত ইন্দ্রজ্যোতি থেরো। এতে সামস সিএন্ডএফ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দানবীর পান্নালাল বড়ুয়া প্রধান জ্ঞাতি, রুপসীপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছাচিং প্রু মার্মা ও অধ্যাপক ডাঃ পরিতোষ বড়ুয়া বিশেষ জ্ঞাতি ছিলেন।
দান উদযাপন কমিটির আহবায়ক বিশ্বজিৎ বড়ুয়ার স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে দান সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন- দৈনিক আজাদী পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার রতন বড়ুয়া। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মাষ্টার মিলন বড়ুয়া। শেষে বিশ্বশান্তি কামনা করে উৎসর্গ করা হয় পুণ্যদান ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হয়। বণাশ্রম বৌদ্ধ বিহারে দানোত্তম কঠিন চীবর দানসভায় প্রধান দেশকের বক্তব্যে পরিনির্বাপিত সাধনানন্দ মহা থেরো (বনভান্তে)’র শিষ্য, বিদর্শনাচার্য্য ভদন্ত শ্রীমৎ প্রজ্ঞারত্ন থেরো বলেছেন, প্রাণী মাত্রই জন্ম জ্বরা ব্যাধি মৃত্যু দুঃখের অধিন। লোভ দ্বেষ মোহই এসব দুঃখের মূল কারন। অতএব, দুঃখমুক্তির জন্য এসব মূল কারনগুলে কে ধ্বংস করতে তথাগত সম্যক সম্বুদ্ধের শিক্ষা চারি আর্যসত্য ও আর্যঅষ্টাঙ্গীক মার্গপথ অনুসরণ করতে হবে।
এর আগে ৬ নভেম্বর ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ইয়াংছা ছোট পাড়ায় দানোত্তম কঠিক চীবর দান অনুষ্ঠিত হয়। এতে বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈহ্লা প্রধান অতিথি ছিলেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ ইসমাইল, নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি, বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য মোস্তফা জামাল, ফাতেমা পারুল, থানা অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা, রুপসীপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ছাচিংপ্রু মার্মা, গজালিযা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বাথোয়াইচিং মার্মা, পরিষদ সদস্য আপ্রুচিং মার্মা ও মো. শহীদুজ্জামান প্রমুখ।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।