লামায় বিষপ্রয়োগে গৃহবধূ হত্যা !

রেহেনা বেগম নামের এক গৃহবধূকে বিষ প্রয়োগে হত্যা
রেহেনা বেগম নামের এক গৃহবধূকে বিষ প্রয়োগে হত্যা
বান্দরবানে লামার উপজেলার গাজালিয়া ইউনিয়নে রেহেনা বেগম(২৫) নামের এক গৃহবধূ কে বিষপ্রয়োগে হত্যার অভিযোগে ৪ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের পিতা নুর হোসেন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এই মামলা দায়ের করে। আদালত অভিযোগটিকে আমলে নিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লামা থানার অফিসার ইনচার্জকে নিদের্শ দিয়েছেন।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে,গত ১৯ আগষ্ট শুক্রবার বিকাল ৩টা হতে ৫টার মধ্যে গৃহবধু রেহেনার স্বামী,শ্বশুড়,শাশুড়ি ও বাড়ির লোকজন শারীরিক নির্যাতন শেষে মৃত্যু নিশ্চিত করতে জোর পূর্বক মুখে বিষ ঢেলে হত্যা করে।
উক্ত ঘটনায় নিহতের পিতা নুর হোসেন বাদী হয়ে লামা থানায় অপমৃত্যু মামলা ১৩/২০১৬ রুজু করেন। ময়না তদন্ত শেষে লাশ দাফন করা হয়।
নিহতের পিতা নুর হোসেন অভিযোগ করে জানিয়েছেন, রেহেনার শরীরের ঠোঁটে,নাকে কাটা দাগ ও মাথায় আঘাতের একাধিক চি‎হ্ন ছিল। কিন্তু তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মোঃ আজমগীর যথাযতভাবে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেননি। পুলিশ আসামীদের সাথে আতাত করে পরিকল্পিত ভাবে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেছে।
বিষপ্রয়োগ ও আঘাতের কারণে রেহেনার মৃত্যুর বিষয়টি পুলিশকে বার বার জানানোর পরেও এই বিষয়ে কোন ধরনের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি।
অবশেষে বৃহস্পতিবার নিহতের পিতা ৪ জনকে আসামী করে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলার আসামীরা হল, গিয়াস উদ্দিন, আবুল কাসেম, মহিউদ্দিন ও ফাতেমা বেগম টুনি।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।