লামায় স্কুল ছাত্রীকে গলায় ছুরি ধরে ধর্ষণ !

বান্দরবানের লামা উপজেলায় এবার নবম শ্রেণীর পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ করেছে ভিকটিম ও তার পরিবার। ধর্ষক মোঃ সাইফুল উপজেলার ফাঁসিয়াখালি ইউনিয়নের হারগাজা এলাকার সেকান্দার আলীর ছেলে।

ভিকটিমের পরিবার জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়িতে মেয়েটি ও তার ছোট বোন ছিলো। আর কেও ঘরে ছিলো না, ঐ সময় ধর্ষক মোঃ সাইফুল বাড়ির আঙ্গিনায় এসে তার গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ভয় দেখিয়ে তাকে বাড়ির পাশে পাহাড়ে নিয়ে যায়। সেখান তাকে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে ধর্ষন করে।

আরো জানা গেছে, মেয়েটির শারিরীক অবস্থা ভালো না হওয়ায় আজ (১৭ই নভেম্বর) বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে মেয়েটির মা লামা হাসপাতালে ধর্ষিতা মেয়েকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসেন।

লামা হাসপাতালে জরুরী বিভাগে দ্বায়িত্বরত সহকারী মেডিকেল অফিসার ডাঃ রাইয়ান জান্নাত বিলকিস সুলতানা বলেন, ভিকটিম এর শরীরে ধর্ষণের আলামত রয়েছে। আমার তাকে জেলা সদর হাসপাতালে ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে রেফার করেছি।

এদিকে এই ব্যাপারে লামা থানার পুলিশের অফিসার ইনর্চাজ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, এই বিষয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রেকর্ডের প্রক্রিয়া চলছে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।