লামায় স্বাস্থ্য সেবায় অবদানের জন্য ওরা পেলেন পুরস্কার

লামায় সেরা প্রোভাইডার আরজুর হাতে পুরস্কার তুলে দিচ্ছেন সিভিল সার্জনসহ অতিথিরা
গ্রাম পর্যায়ে স্বাস্থ্য সেবায় অবদানের জন্য তিনজন কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রোভাইডার ও তিনজন স্বাস্থ্য সহকারীকে আনুষ্টানিকভাবে পুরস্কৃত করেছে বান্দরবানের লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে আয়োজিত বাৎসরিক মিলন মেলা অনুষ্ঠানে তাদেরকে পুরস্কৃত করা হয়।
শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য সহকারী সমীরণ বড়ুয়ার সঞ্চালনায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোহাম্মদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বান্দরবান সিভিল সার্জন অংশৈই প্রু মার্মা। জাতিসংঘ জনসংখ্যা ও পুষ্টি বিষয়ক উন্নয়ন তহবিলের জেলা সমন্বয়কারী ধনঞ্জয় ত্রিপুরা, ম্যালেরিয়া নির্মূল কর্মসূচীর সার্ভেল্যান্স চিকিৎসক সিরাজুল ইসলাম, আবাসিক চিকিৎসক শফিউর রহমান মজুমদার, জুনিয়র কনসালটেন্ট (সার্জারী) নজরুল ইসলাম, জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী) মাকসুদা বেগম, চিকিৎসক রেজাউল করিম ও জিয়াউল হায়দার বিশেষ অতিথি ছিলেন।
অনুষ্ঠানে গ্রাম পর্যায়ে গর্ভবতী নারীদের স্বাভাবিক প্রসব, সর্বোচ্চ রোগীর মাঝে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতায় অবদানের জন্য নির্বাচিত ইয়াংছা কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রোভাইডার উম্মে হায়াত আরজু, সন্ধীপপাড়া কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রোভাইডার সালমা আক্তার, মেরাখোলা কমিউনিটি ক্লিনিকের প্রোভাইডার সোলতানা ইয়াছমিন, স্বাস্থ্য সহকারী মহি উদ্দিন, প্রকাশ কান্তি দাশ ও রমিজ উদ্দিনের হাতে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।
পরে অবসর জনিত কারণে সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক দেলওয়ার হোসেন ও সামশুল ইসলাম, নার্সিং সুপার ভাইজার বীথিকা তালুকদার, প্রধান সহকারী কর্ম হিসাব রক্ষক অরুণ বিকাশ দত্ত, স্বাস্থ্য সহকারী জীতেন্দ্র নাথ বর্মন ও পরিচ্ছন্নতা কর্মী আবুল কাশেমকে বিদায়ী সংবর্ধণা দেয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।