লামায় সড়ক সংস্কার না করলে ইট পরিবহনের যান ঢুকতে দেয়া হবেনা

বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নে ইট পরিবহন কাজে নিয়োজিত যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ফাইতং হেডম্যান পাড়া থেকে বানিয়ার ছড়া পর্যন্ত সংস্কারের দাবীতে সড়কের উপর ব্যারিকেড দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেন সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও স্থানীয়রা। এতে গত দু দিন ধরে ওই সড়ক দিয়ে ইট পরিবহন কাজে নিয়োজিত যান চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার সকালে ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জালাল উদ্দিন বলেন, ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে স্থাপিত ইটভাটাগুলোর ইট পরিবহন কাজে নিয়োজিত শতশত ট্রাক চলাচলের কারণে দু বছর আগে সরকার কর্তৃক কোটি কোটি টাকা ব্যায়ে নির্মিত ফাইতং হেডম্যান পাড়া থেকে বানিয়ার ছড়া পর্যন্ত ৪ কিলোমিটার সড়কটি তছনছ হয়ে মিনি পুকুরে পরিণত হয়েছে। ফলে ফাইতং ইউনিয়নের জনসাধারণ বিশেষ করে স্কুল কলেজ মাদ্রাসাগামী শিক্ষার্থীসহ রোগিরা দীর্ঘদিন ধরে চরম ভোগান্তিতে আছেন।এ বিষয়ে ইটভাটার মালিকদের একাধিকবার অবগত করলেও তারা কোন ধরনের সড়ক মেরামতে এগিয়ে আসেনি। তাই মালিকরা যতক্ষণ পর্যন্ত সড়ক সংস্কার না করবেন, ততক্ষণ পর্যন্ত ইটভাটার কাজে নিয়োজিত কোন যানবাহন ফাইতংয়ে ঢুকতে পারবেনা। বর্তমানে এ সড়ক দিয়ে গাড়িতে করে চলাচল দূরে থাক, পায়ে হেঁটে চলাও কষ্টকর হয়ে পড়েছে বলে জানান অটোরিক্সা চালক মঞ্জুরুল আলম, স্থানীয় বাসিন্দা মনিরুল ইসলাম ও রুহুল আমিন।

এ বিষয়ে ফাইতং ইট ভাটা মালিক সমিতির পক্ষে কবির হোসেন বলেন, দু’একদিনের মধ্যে সড়কটি সংস্কার কাজ শুরু করবো। ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ইউনিয়নবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির একান্ত প্রচেষ্টায় দুই প্যাকেজে প্রায় সোয়া কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটি সংস্কার করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। ধারণ ক্ষমতার বেশি ইট বোঝাই ট্রাক চলাচলের কারণে সড়কটি অল্প সময়ের মধ্যে ভেঙ্গে তছনছ হয়ে গেছে বলে জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের লামা উপজেলার সার্ভেয়ার জাকের হোসেন মোল্লা।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।