লামায় ২টি অস্ত্রসহ দুই চাঁদাবাজ আটক

বান্দরবানের লামা উপজেলায় দুইটি দেশিয় তৈরি বন্দুকসহ দুই চাঁদাবাজকে আটক করেছে সেনাবাহিনী। সোমবার দুপুরে উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি গয়ালমারা এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ ৬৮ হাজার টাকাও উদ্ধার করে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। আটকরা হলো, গয়ালমারা এলাকার মেনসিং মুরুং কারবারী পাড়ার বাসিন্দা ডেঙ্গা চাকমা ও আলীকদম উপজেলার গয়ামঝিরি বাসিন্দা সুব্রত চাকমা।
সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের বনপুর, ত্রিশডেবা, গয়ালমারা, রাজা পাড়া, সাফেরঘাটা, সাঙ্গু এলাকায় একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ স্থানীয় কৃষক ও ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে চাঁদা আদায় করে আসছিল। এমন সংবাদের ভিত্তিতে আলীকদম সেনাবহিনীর সদস্যরা গয়ালমারা এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় নগদ টাকা ও দুইটি বন্দুকসহ দুইজনকে হাতেনাতে আটক করেন।
একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানান, আটক ডেঙ্গা চাকমা স্থানীয় পাহাড়ি সংগঠন জেএসএস কমান্ডার কাজল চাকমার ঘনিষ্ট সহচর। সে লামা ও আলীকদম থানায় হত্যা, অপহরণ ও চাঁদাবাজীসহ নানা অপরাধের মামলার একজন ফেরারী আসামী। দীর্ঘদিন থেকে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের গয়ালমারা এলাকায় পাথর, বালু, ফুলের ঝাড়ু ও তামাক চাষীদের কাছ থেকে চাঁদা করে আসছিল ওই সন্ত্রাসী। তার সব অপকর্মের সহযোগী সুব্রত চাকমার বিরুদ্ধেও চাঁদাবাজী অপহরণসহ নানা অভিযোগ রয়েছে বলেও সূত্র জানিয়েছে।
এদিকে এই ব্যাপারে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, আটকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরও পড়ুন
1 মন্তব্য
  1. Susanta Tangchangya বলেছেন

    হলুদ সাংবাদিকতা বন্দ করুন,তারা জেএসএস কোন কর্মী নয়, কোন শাখাতে বা কমিটিতে তাদের নাম নেই

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।