শান্তি চুক্তির সুফল বাস্তবে রুপ নিয়েছে : প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর

গুংগুরু পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গণে জনসভায় পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি
১৯৯৭ সালের ২রা ডিসেম্বর শান্তি চুুক্তির হয়ে ছিল সেখানে আমি ও উপস্থিত ছিলাম। আজ এই শান্তি চুক্তির সুফল বাস্তবে রুপ নিয়েছে। সারা বাংলাদেশের সাথে তালে তাল মিলিয়ে আজ শান্তি চুক্তির ফলে আওয়ামীলীগ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার নির্দেশনায় আজ বান্দরবানের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারছে। কুহালং ইউনিয়নের গুংগুরু পাড়ায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের অর্থায়নে ২৫ লক্ষ টাকা ব্যায়ে গুংগুরু আগা পাড়া বৌদ্ধ বিহারের উদ্বোধনসহ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে গুংগুরু পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গণে এক জনসভায় একথা বলেন পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
এসময় তিনি আরো বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের প্রতীক। তিনি সারা বিশ্বের কাছে একটি রোল মডেল।
পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের অর্থায়নে কয়েকটি উন্নয়ন মূলক প্রকল্পের উদ্বোধন শেষে গুংগুরু পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গণে এক জনসভায় অনুষ্ঠিত হয়। বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ম্রাসা খেয়াং এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
এসময় জনসভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো.শফিউল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আলী হোসেন, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্য সা প্রু , সদস্য ফিলিপ ত্রিপুরা, সদস্য সিং ইয়ং ম্রো, সদস্য তিং তিং ম্যা, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো.আবদুল আজিজ, সহকারী প্রকৌশলী মো.নুর হোসেন, ২নং কুহালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সানু প্রু মার্মা, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পাইহ্লা অং মার্মা, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মং পু মার্মা, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক বাবুল বড়ুয়া, সাবেক ছাত্রনেতা সুজন চৌধুরী সঞ্জয়, আকাশ চৌধুরী সহ এলাকার হেডম্যান, কারবারী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।