শেষ মুহূর্তে প্রচার প্রচারণায় জমে উঠেছে আলীকদম ইউপি নির্বাচন

বান্দরবানের আলীকদমে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শেষ সময়ে জমে উঠেছে জমজমাট প্রচার প্রচারণা। শেষ মিছিলে সদর, চৈক্ষ্যং, নয়াপাড়ায় আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থী নিজের অবস্থা জানান দিতে মরিয়া।বাঁশি, ঢোল, স্লোগানে চারপাশ মুখরিত করে রেখেছে সমর্থকরা।

প্রার্থীরা একে অপরকে প্রচারণা সভায় কথার বানে ঘায়েলের চেষ্টা। একাজে পিছিয়ে নেই তাদের সমর্থকেরা। সকাল থেকে রাত অবধি উপজেলার ৪ ইউনিয়নের দুর্গম এলাকাগুলোতে প্রার্থী আর সর্মথকদের ভোটের আবদার নিয়ে পা পরছে ভোটারের আঙ্গিনায়, আবার কেউ কেউ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে প্রচারনার কাজে ব্যবহার করছেন। ভালমন্দ বিচার বিশ্লেষণ করে ভোট দেওয়ার পক্ষে হাঁটছেন ভোটাররা। তবে নির্বাচনে ভোট কতটা সুষ্ট হবে, এনিয়ে আছে নানা জল্পনা কল্পনা। প্রার্থীদের চোখে নেই ঘুম, চলছে ভোট প্রার্থনা, উঠান বৈঠক, জনবহুল স্থানে নিবার্চনী পথসভা। পাশাপাশি ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। পুরো উপজেলায় আনাছে কানাছে প্রার্থীর বিভিন্ন আর্কষণীয় শব্দমালার সাদা-কালো পোষ্টার-ব্যানার। প্রত্যেক পাড়া-মহল্লা, বাজারে প্রার্থীদের পক্ষে চলছে মাইকিং ও নানা অঙ্গভঙ্গির গানবাজনা। চায়ের দোকান থেকে ঘরের আঙ্গিনায় কে কোন ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য হবেন তা নিয়ে ভোটারদের মধ্যে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ। ভোটারদের কাছে গিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিগত দিনের এলাকার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরছেন। আর অন্যদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যানদের অতীত ভুল ভ্রান্তি তুলে ধরে নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করছেন।

উপজেলার ৪ ইউনিয়নের মধ্যে আলীকদম সদর ও নয়াপাড়া, কুরুকপাতা ইউনিয়নে নিজ দলের বিরোধী প্রার্থীর সাথে লড়াই করতে হচ্ছে আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে। আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের সাথে দলীয় নেতা-কর্মীরাও প্রচার প্রচারণায় সমান ভাবে অংশ গ্রহন করছেন। দলীয় প্রার্থীদের জয়ী করার জন্য আওয়ামী লীগ ও তার অংগ সংগঠনগুলো দিন রাত প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছেন। আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করতে খুটি গেড়েছেন জেলা আওয়ামীলীগ ও জেলার অঙ্গ সংগঠন। বিগত দিনে এলাকায় উন্নয়নের কারনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা তাদের জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

অপর দিকে ৪ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জানিয়েছেন, ভোটারদের ইচ্ছায় ও দাবীর প্রেক্ষিতে তারা নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেছেন। অবাধ, সুষ্ঠ এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচন হলে তারা জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। নির্বাচনী মাঠকে নিরপেক্ষ রাখা জোর দাবি জানান স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। এবার আলীকদমের ৪ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একটিতে বিএনপি এক নেতা স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে জয়নাল আবেদীন অংশ গ্রহণ করেছেন, অপর দিকে বাকি ৩টি ইউপিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত) প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন খোদ আওয়ামী লীগের তিন নেতা আনোয়ার জিহাদ চৌধুরী, এম.কফিল উদ্দিন নেতারা। তাদের সামাল দিতে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের ঘাম জড়াতে হচ্ছে ব্যাপক।

আলীকদম সদর ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন প্রতিদ্বন্দ্বী মোটর সাইকেল প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন সদ্য বহিষ্কৃত উপজেলা যুবলীগের সভাপতি আনোয়ার জিহাদ চৌধুরী। এছাড়া আনারস প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন মোহাম্মদ বাদশা মিয়া।

চৈক্ষ্যং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ ফেরদৌস রহমানের প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়াম্যান পদে লড়ছেন বিএনপির নেতা জয়নাল আবেদীন।

নয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ফোগ্য মার্মার প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীক নিয়ে সদ্য বহিষ্কৃত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম.কফিল উদ্দীন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন। কুরুকপাতা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী ক্রাতপুং ম্রোর প্রতিদ্বন্দ্বী আনারস প্রতীক নিয়ে সদ্য বহিষ্কৃত উপজেলা শ্রমিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খামলাই ম্রো স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন

প্রতীক বরাদ্দের পর পর পুরো উপজেলায় গাছের ডালে, রাস্তার উপর, চায়ের দোকানের দেয়ালে টাঙ্গানো হয়েছে প্রতীক সম্বলিত বাহারি ধরনের সাদা-কালো পোষ্টার-ব্যানার। বেলা দু’টার পর প্রত্যেক পাড়া-মহল্লা, বাজার ও বিভিন্ন সড়কে নিজ নিজ প্রার্থীদের পক্ষে চলছে মাইকিং। পাশাপাশি প্রচারণা চলছে মোবাইল ফোনে এসএমস এবং সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে নিজেদের পোস্টার শেয়ার করার মধ্য দিয়ে।

কোন ইউনিয়নে কে কে হবেন চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ও সাধারণ সদস্য তা নিয়ে ভোটারদের মধ্যে চলছে নানা হিসাব-নিকাশ। ভোটারদের কাছে গিয়ে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিগত দিনের এলাকার উন্নয়নের ফিরিস্থি তুলে ধরছেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থীরা চেয়ারম্যানদের অতীত ভুল ভ্রান্তি তুলে ধরে নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রত্যাশা করছেন।

এদিকে, নির্বাচনের শেষ দুইদিনে প্রচারনায় ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন প্রার্থীরা। ভোর সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত হাউজ ক্যাম্পেইন, উঠান বৈঠক এবং পাড়ায় পাড়ায় জনসভাসহ নানাবিধ কর্মসূচীর মাধ্যমে চালিয়ে যাচ্ছেন নির্বাচনী প্রচারণা। আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের সাথে দলীয় নেতা-কর্মীরাও প্রচার প্রচারণায় সমান ভাবে অংশ গ্রহন করছেন। দলীয় প্রার্থীদের জয়ী করার জন্য আওয়ামী লীগ ও তার অংগ সংগঠন গুলো দিন রাত প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রয়েছেন। বিগত দিনে এলাকায় উন্নয়নের কারনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীরা তাদের জয়ের ব্যাপরে শতভাগ আশাবাদী।

আসন্ন ইউপি নির্বাচনের ভোট যুদ্ধে প্রচার-প্রচারণায় পিছিয়ে নেই সংরক্ষিত মহিলা সদস্য প্রার্থী ও সাধারন সদস্য প্রার্থীরা। মহিলা প্রার্থীদের সাথে তাদের স্বামী-সন্তান এবং পুরুষ সদস্যদের সাথে তাদের স্ত্রী ও সন্তানেরা সমান ভাবে রাত দিন প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের সবারই প্রত্যাশা ভোট যুদ্ধে জয়ী হবেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানান, উপজেলার মোট ভোটার ৩০ হাজার ৭৭৮ জন, যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৫ হাজার ৪ শত ৬২ এবং মহিলা ভোটার ১৫ হাজার ৩ শত ১৬ জন। আলীকদম সদর ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার ৫ হাজার ৫ শত ১৫ জন, মহিলা ভোটার ৫ হাজার ৩ শত ৪৫ জন। চৈক্ষ্যং ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার ৪ হাজার ২ শত ৬০ জন এবং মহিলা ভোটার ৪ হাজার ৪ শত ০২ জন। নয়াপাড়া ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার ২ হাজার ৬ শত ৭০ জন এবং মহিলা ভোটার ২ হাজার ৭ শত ৭০ জন। কুরুকপাতা ইউনিয়নে পুরুষ ভোটার ৩ হাজার ০ শত ০৮ জন এবং মহিলা ভোটার ২ হাজার ৭ শত ৯৯ জন। আলীকদমে ৪ ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৩৬ টি। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৩২ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ১০৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।

উপজেলা রির্টানিং কর্মকর্তা আতিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন,শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহনের আমাদের সব প্রস্তুতি শেষ পর্যায়।তিনি আরও বলেন, চার ইউনিয়নে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র হিসেবে ২৩ কেন্দ্র চিহ্নিত করা হয়েছে। সদরে ৬টি, চৈক্ষ্যং ৬টি, নয়াপাড়া ৯টি, কুরুকপাতা ২টি।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।