সংসারের সবচেয়ে অবহেলিত মানুষটির নাম “বাবা”

baba1434829034সংসারের সবচেয়ে অবহেলিত মানুষটির নাম “বাবা”। কঠিন হাত পা আর শক্ত পাজরের নিচে লুকিয়ে রাখা এক টুকরো নরম মাংস পিন্ডকে পাহাড়া দেয় এক’ রাশ ভারী গলা।
প্রিয়জনদের আগলে রাখার ভয়ে অসংখ্য বার কেঁপে ওঠা বুকটার ধুক ঢুকানি চাঁপা পড়ে যায়
তার নকল হুঙ্কারের আড়ালে।
পূজা পার্বন আর ঈদ বলেন সবার বাজেটের শেষে তার বাজেটের কোন খোজ হয়না।
‘বাবা তো’ যিনি কিনে দেন তিনি পড়েন না !
বাবার শাসনে অতিষ্ট ছেলেটা দেখেনা বাবা এখন নুইয়ে নুইয়ে হাটে। আর কত দিন !
বাবা প্রানপনে ভাবে এইতো ছেলেটা মানুষ হলেই হলো। আমরা মানুষ হই বাবারা পড়ে
যায়। কিন্তু তারপর ? এবারের ঈদে ছেলে এখন বাবা। বউ বোন মা সবার জন্য সব হয়
বাবার জন্য পাঞ্জাবী হয় তো লুঙ্গি হয়না। বুড়ো মানুষ তার আবার কিসের ঈদ !
একটা জীবন তার পুরোটা কেটে যায় সকলের শখ পূরণে অথচ যখন ফিরে পাবার কথা তখন
নাকি তার কোন শখ আহ্লাদ নাই !
নিষ্ঠুর নিয়মে চলে পুরুষ সার্কেল ……… ছেলে থেকে বাবা বাবা থেকে দাদা
প্রতিটা পুরুষের হাড় গুলো এম্নিতেই শক্ত হয়না।
বছরের পর বছর হাজারটা ঝড়ের সামনে খুটির মত দাড়িয়ে থাকতে থাকতে এক সময় বেঁকে
যায়। সুযোগ পেলেই শক্ত বুকটা মাঝে মাঝে ছুয়ে দিয়েন। নইলে বাবারা বড় স্বার্থপর
হয়, বাবা না হলে বুঝতেই পারবেন না শাসন পেরিয়ে তাঁকে ছুতে না পারলে আর কোনদিন
ছোয়া হবেনা। সূত্র- গণ মানুষের আওয়াজ

আরও পড়ুন
Loading...