সব ধর্মে বিয়ে রেজিষ্ট্রি বাধ্যতামুলক না হলে বাল্য বিয়ে বন্ধ সম্ভব নয়

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্পের আয়োজনে বান্দরবান জেলার লামা উপজেলায় জন্ম ও বিবাহ নিবন্ধকগণের অংশ গ্রহনে উপজেলা পর্যায়ে অবহিতকরণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল। নির্বাহী অফিসার মো. মোস্তফা জাবেদ কায়সারের সভাপতিত্বে পরিষদ সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় জেলা সহকারী তথ্য অফিসার খন্দকার তৌহিদুর রহমান, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তপন কান্তি চৌধুরী ও সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিন্টু কুমার সেন বিশেষ অতিথি ছিলেন। এতে থানা প্রতিনিধি, কাজী, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সচিব, সাংবাদিক, এনজিও প্রতিনিধি প্রমুখ অংশ গ্রহণ করেন।

উপজেলা প্রশাসন ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপজেলার বাল্য বিবাহের জরীপের তথ্য উপস্থাপন করেন টেকসই সামাজিক সেবা প্রদান প্রকল্প ব্যবস্থাপক একেএম রেজাউল হক।

কর্মশালার উন্মুক্ত আলোচনায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগণ বলেন, শুধুমাত্র মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে রেজিষ্ট্রির মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন করা হয়। কিন্তু হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ধর্মালম্বীদের মধ্যে বিয়ে রেজিষ্টার বাধ্যতামুলক না হওয়ায় বাল্য বিয়ে হচ্ছে। সব ধর্মে বিয়ে রেজিষ্ট্রি বাধ্যতামূলক করা হলে বাল্য বিয়ে বন্ধ সম্ভব। তাই চেয়ারম্যানরা বাল্য বিয়ে বন্ধে সব ধর্মেই বিয়ে রেজিষ্ট্রি ব্যবস্থার দাবী জানান।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।