সর্পিল বন্ধুর পথে মাউটেন্ট বাইকে তিন’শ কিলোমিটারের যাত্রা শুরু

মুজিব শতবর্ষে পাহাড়ে শুরু হয়েছে সাজেক থেকে থানছি পর্যন্ত সর্পিল-বন্ধুর পথে মাউন্টেন বাইক প্রতিযোগীতা।

আজ সোমবার (২৮ডিসেম্বর) সকালে রাঙ্গামাটির সাজেক ভ্যালীর জিরো কিলোমিটারে বঙ্গবন্ধু ট্যুর ডি সিএইচটি এমটিবি চ্যালেঞ্জের উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ, এমপি। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় রাঙ্গামাটির সাজেক থেকে বান্দরবানের থানছি পর্যন্ত ৩০০ কিলোমিটার পথে মাউটেন্ট বাইক প্রতিযোগীতার আয়োজন করে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ বলেন, দেশের উন্নয়ন ধারাকে বাধাগ্রস্ত করতে একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে। তাদের ব্যাপারে সর্তক থাকতে হবে। দেশের শান্তিতে যারা খুশি নয়, তারাই পার্বত্য চট্টগ্রামের শান্তি ও উন্নয়নে খুশি নয়।

পার্বত্য চট্টগ্রামের উন্নয়নে সরকার মনোযোগী জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, পর্যটন খাতকে বিকশিত করতে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। মাউটেন্ট বাইক প্রতিযোগীতাও তন্মধ্যে একটি। পাহাড়ে উন্নয়নের লক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় তথা সরকার আন্তরিক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাঙ্গামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার, খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা সহ সামরিক বেসামরিক পদস্থ কর্মকর্তা-জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

রাঙ্গামাটির সাজেক ভ্যালী থেকে শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধু ট্যুর ডি সিএইচটি এমটিবি চ্যালেঞ্জ শেষ হবে আগামী ৩০ ডিসেম্বর বান্দরবানের থানছিতে গিয়ে। ৩০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেয়ার এ চ্যালেঞ্জে অংশ নিয়েছেন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ১০০ প্রতিযোগী।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।