সাংবাদিকদের সাথে অসৌজন্যমুলক আচরণ করলো বাফুফে কর্তা

বান্দরবানে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট

এ যেন দাওয়াত দিয়ে অসন্মান করা ! জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বান্দরবানে স্টেডিয়ামে বর্ণাঢ্য আয়োজনে শুরু হওয়া মুজিব শতবর্ষ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টে বান্দরবানের সাংবাদিকদের লাঞ্চিত করার ঘটনা ঘটেছে।

আজ শনিবার (২৮ নভেম্বর) বিকালে জাতীয় সংসদের হুইপ চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরী এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন। এসময় বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো.মাহাবুব আলম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আছাদুজ্জামান, চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দিন মোহাম্মদ আলমগীর, বান্দরবান জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসলাম বেবিসহ ক্রীড়াপ্রেমীরা উপস্থিত ছিলেন। চট্টগ্রাম বিভাগীয় ফুটবল এসোসিয়েশনের আয়োজনে উদ্বোধনী খেলায় বান্দরবান জেলা দল কুমিল্লা জেলা দলকে ২-০ গোলে পরাজিত করে।

এদিকে উদ্বোধনী খেলায় বান্দরবানে স্থানীয় কর্মরত সংবাদকর্মীদের কোন ধরনের সৌজন্যতাবোধ দেখায়নি ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটি। বান্দরবান জেলা ক্রিড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদকের পছন্দের দু-য়েক সাংবাদিককে আমন্ত্রন জানানো হলেও স্থানীয় প্রথম সারির টিভি চ্যানেল ও পত্রিকার সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ না জানানো। উদ্বোধনী খেলায় দুই দলের খেলোয়াড়দের জন্য পর্যাপ্ত বসার স্থান, স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারীদের পর্যাপ্ত বসার স্থান রাখা হলেও বান্দরবান জেলার কোন সাংবাদিকদের বসার জন্য কোন নির্ধারিত স্থান রাখা হয়নি।

আরো জানা গেছে, শুধু তাই নয়, ছবি ও ফুটেজ নিতে গেলেও বাফুফের কর্মকর্তারা জেলার সাংবাদিকদের সাথে খারাপ আচরণ করে। বাফুফের এক কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম লিমন বান্দরবানের সাংবাদিকদের মাঠ থেকে বের হয়ে চলে যেতে বলেন এবং ছবি ও ফুটেজ নিতে বাঁধা প্রদান করে। বান্দরবানে জেলায় কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীদের সাথে এই ধরনের বাজে ব্যবহার দেখে উপস্থিত দর্শকরাই হতবাক হয়ে পড়ে। এই সময় বান্দরবান জেলা ক্রিড়া সংস্থার কর্তাদের নিরব ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন অনেকে।

এই ব্যাপারে বান্দরবান প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হক বলেন, মুজিব শতবর্ষ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট এর এই আয়োজনে শুরুর দিন সংবাদকর্মীদের সাথে এমন আচরণ করা ঠিক হয়নি। পেশাগত কাজে সংবাদকর্মীদের সহযোগিতা করা সকলের দায়িত্ব।

এই ব্যাপারে মোহনা টিভির প্রতিনিধি রাহুল বড়ুয়া ও মাছরাঙা টিভির জেলা প্রতিনিধি কৌশিক দাশ বলেন, উদ্বোধনী খেলা কভার করতে গেলে বাফুফের কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম লিমন আমাদের টেনে মাঠের একপ্রান্তে নিয়ে যায় এবং ছবি ভিডিও নিতেও বাধা প্রদান করেন। কেন ভিডিও ও ছবি নেব না প্রশ্ন করলে, তিনি কোন সুদত্তর দিতে পারেনি। আমি ছাড়া আমার অনেক সহকর্মীর সাথে দুব্যবহার করেন ঢাকা থেকে আগত বাফুফের কর্মকর্তা শহীদুল ইসলাম লিমন।

আরো জানা গেছে, দেশের প্রথম সারির টিভি চ্যানেল ও পত্রিকাগুলো স্থানীয় প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ না জানালেও আয়োজকরা চট্টগ্রাম থেকে সাংবাদিক নিয়ে এসে আলোচনার জন্ম দেন বান্দরবানে।

প্রসঙ্গত, মুজিব শতবর্ষ বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২০ এর এবারের আয়োজনে বান্দরবান, রাঙামাটি কক্সবাজার, কুমিল্লা, লক্ষ্মীপুর, চট্টগ্রামসহ মোট ১০টি দল অংশগ্রহণ করবে। টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে চট্টগ্রাম জেলা স্টেডিয়ামে।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।