সাংস্কৃতিক চর্চার বিকাশে কাজ করবে মাইনী ফাউন্ডেশন

সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান মাইনী ফাউন্ডেশন উদ্ধোধন করেন, খাগড়াছড়ি’ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা
খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলার প্রান্তিক ও সুযোগবঞ্চিত জনগোষ্ঠির সাংস্কৃতিক, শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং পরিবেশগত ভারসাম্য রক্ষা প্রভৃতি উন্নয়নসাধনের লক্ষ্যে কাজ করবে সদ্য প্রতিষ্ঠিত‘‘মাইনী ফাউন্ডেশন’ নামে একটি সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান চালু করা হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে দীঘিনালা সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং ফিতাকেটে এ সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের উদ্ধোধন করেন, খাগড়াছড়ি’ থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।
অনুষ্ঠানে মাইনী ফাউন্ডেশনের সভাপতি দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নব কমল চাকমার সভাপতিত্বে, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ সরকারের (অবসর প্রাপ্ত) যুগ্ন সচিব ও মাইনী ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ইউ.কে.জেন, রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযু্িক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. প্রদানেন্দু বিকাশ চাকমা, খাগড়াছড়ি সরকারী কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ বোধিস্বত্ত দেওয়ান, দীঘিনালা জোন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল ফেরদৌস জিয়া উদ্দীন মাহমুদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শেখ শহিদুল ইসলাম, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের প্র্ক্তান চেয়ারম্যান চাইথো অং মারমা, খাগড়াছড়ি সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক পুলিন বিহারী চাকমা, মানবাধিকার কর্মী নিরুপা দেওয়ান এবং অরুণ কান্তি চাকমা প্রমূখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা নিজেদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন, শিক্ষা এবং সাংস্কৃতিক চর্চার ক্ষেত্রে সারা দেশের তুলনায় অনেক পিছিয়ে। এখনো বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা নিজ কর্মস্থলে শিক্ষকতা না বর্গা শিক্ষক দিয়ে কাজ করে চলেছেন। এতে করে শিক্ষকদের দায়িত্বহীনতা এবং এলাকার অভিভাবকদের সচেতনতার অভাবে শিক্ষার্থীরা প্রতারিত হচ্ছে। এসব বিষয়ে সচেতনাসহ শিক্ষা এবং সাংস্কৃতিক বিকাশে কাজ করবে ‘মাইনী ফাউন্ডেশন”
এসময় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কতৃক প্রদত্ত ল্যাপটপ ২৯টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে বিতরণ করেন।

আরও পড়ুন
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।