সেই ২ রোহিঙ্গার বিরুদ্ধে বান্দরবানে মামলা দায়ের

প্রতারণা করে জাল জালিয়াতের মাধ্যমে রোহিঙ্গা হয়ে ও বান্দরবান আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে ভুয়া কাগজপ্রত্র প্রদান করে পাসপোর্ট করতে এসে পুলিশের হাতে ধরা পড়া নারীসহ দুই রোহিঙ্গার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বান্দরবান সদরের আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে তাদের আটক করে পুলিশ। পরে তাদের বিষয়ে প্রাথমিকভাবে তদন্ত করে জানা যায়,আটক জোসনা আক্তার (১৫) ও তার পিতা পরিচয়দানকারী মো:শহিদ আলম(৩৮) মায়ানমারের নাগরিক। তারা দীর্ঘদিন বাংলাদেশে বসবাস ও বান্দরবানে অবস্থান করে জাল কাগজপত্র সংগ্রহ করে বিদেশ যাবার লক্ষ্য নিয়ে বান্দরবান আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট বানাতে আসলে ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে গিয়ে জোসনা আক্তারের ফিঙ্গার প্রিন্টের সাথে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আশ্রয় নেয়া একজনের সাথে তার ফিঙ্গার প্রিন্ট মিলে যায়,পরে পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তাদের সন্দেহের জের ধরে তাকে আটক করলে বিস্তারিত জানতে পারে পুলিশ।

এদিকে বান্দরবান সদর থানার ওসি মো:শহিদুল ইসলাম চৌধুরী জানায়, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে এবং আজ তাদের আদালতে নিয়ে বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

প্রসঙ্গত,গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বান্দরবান আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক রইসুল ইসলাম বাদী হয়ে আটক দুই রোহিঙ্গার বিরুদ্ধে বান্দরবান সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে এবং তার মামলার প্রেক্ষিতে আমরা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।