সেনা সদস্য নিহতের জেরে বান্দরবান-রাঙামাটিতে বিশেষ অভিযান চলছে

টহল জোরদার

বান্দরবানের পাশ্ববর্তী রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলায় গত রবিবার (১৮ আগস্ট) সকালে সেনাবাহিনীর একটি টহল দলের উপর শসস্ত্র সন্ত্রাসীরা গুলি চালানোর পর এক সেনা সদস্য নিহত হলে বান্দরবান ও রাঙামাটি জেলায় নিরাপত্তা বাহিনীর টহল জোরদারের পাশাপাশি বিশেষ অভিযান চলছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলার আর্মি ক্যাম্প হতে ০৪ কিঃ মিঃ দক্ষিণে পোয়াইতুখুম নামক এলাকায় সন্ত্রাসীরা গুলি বর্ষন করলে সেনা সদস্য মো. নাসিম (১৯) গুলিবিদ্ধ হলে তাকে হেলিকপ্টার যোগে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি এই সেনা সদস্য মারা যান। এ ঘটনায় আহত হয় আরো একজন। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালাতে গিয়ে মাটিতে পুতে রাখা মাইন বিষ্ফোরন হয়ে ক্যাপ্টেন মেহেদি ও সৈনিক মুহসীন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, এই ঘটনায় চন্দ্রঘোনা-রাজস্থলী ও রাজস্থলী-বান্দরবান সড়কে থমথমে পরিস্থিতির বিরাজ করছে। ঘটনার পর থেকে আতঙ্কে ঘর থেকে তেমন কাউকে অপ্রয়োজনে বের হতে দেখা যায়নি। গত রবিবার বিকেল থেকেই রাঙামাটি পুলিশ সুপার মো.আলমগীর কবীরের (পিপিএম-সেবা) নির্দেশক্রমে জেলার আইন- শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে জেলা পুলিশের কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কাপ্তাই সার্কেল) মো. জুনায়েত কাওছারের নেতৃত্বে কাপ্তাই, চন্দ্রঘোনা ও রাজস্থলী এলাকায় টহল, ৭টি চেকপোস্টে ডিউটির পাশাপাশি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এসময় কাপ্তাই থানা অফিসার ইনচার্জ মো. নাছির উদ্দিন, চন্দ্রঘোনা থানা অফিসার ইনচার্জ আশ্রাফ উদ্দিন, কাপ্তাই থানা পুলিশ পরিদর্শক (ট্রাফিক) তারক চন্দ্র পাল সহ পুলিশ সদস্যরা সর্তক অবস্থানে রয়েছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কাপ্তাই সার্কেল) জুনায়েত কাওছার বলেন, আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে সেনাবাহিনীর পাশাপাশি পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে,৭টি ক্যাম্প করা হয়েছে, চালানো হচ্ছে অভিযান, তবে এখনো কাউকে আটক করা যায়নি।
রাঙ্গামাটির রাজস্থলীতে সেনাবাহিনীর টহল দলের উপর সন্ত্রাসীদের হামলার ঘটনার পর বান্দরবানেও নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জেলার চারটি জায়গায় অস্থায়ী নিরাপত্তা চৌকি বসিয়ে সেনাবাহিনী ও পুলিশ ব্যাপক তল্লাশি চালাচ্ছে। শসস্ত্র সন্ত্রাসীরা অবস্থান নিতে পারে এমন সম্ভাব্য স্থানগুলোতে বান্দরবানে অভিযান চালাচ্ছে সেনাবাহিনীর বেশ কয়েকটি দল।

নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্র জানায়,রাঙামাটির রাজস্থলীর পাশ্ববর্তী বান্দরবানের রাজবিলা, কুহালং, বাগমারা, আন্তাহা পাড়াসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। উক্ত এলাকা গুলোতে শসস্ত্র সন্ত্রাসীদের আস্তানা থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এই ব্যাপারে বান্দরবানের পুলিশ সুপার (এসপি) জাকির হোসেন মজুমদার জানান, বান্দরবানের পাশ্ববর্তী রাঙামাটির রাজস্থলী এলাকায় সেনাবাহিনীর একটি টহল দলের উপর সন্ত্রাসীদের গুলিবর্ষণের ঘটনায় হতাহত হওয়ার পর সম্ভাব্য এলাকাগুলোতে সেনাবাহিনী ও পুলিশ বিশেষ অভিযান শুরু করেছে।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।