স্বপ্ন পুড়েছে থানচির নিকুঞ্জ বড়ুয়া’র

প্রতিদিনের মতই এক বুক আশা নিয়ে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের বেঁচা বিক্রি হয় বাজারে। ব্যবসায়ের লাভ হলেই মুখ ফুটে উঠে হাসি। সারাদিনের লাভের ঝুলি নিয়ে কর্মক্লান্ত দেহকে একটু শ্রান্ত দেয়ার জন্য যান বিছানায়। কিন্তু সেই ঘুম ভাঙার আগেই ভোরের আলো না ফুটতেই আগুনে জ্বলে উঠল তার লালিত স্বপ্নের দোকান, বলছিলাম থানচি বাজারের ব্যবসায়ী নিকুঞ্জ বড়ুয়ার কথা।

গত ২৭ শে এপ্রিল আকস্মিক এক আগুনে তার দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায় । শুধু নিকুঞ্জ বড়ুয়া নয়, আগুনে পুড়েছে কসমেটিক্স ও কাপড় ব্যবসায়ি মো: সামশুল আলমের দোকান, মোসলেম উদ্দিনের ওষুধের ফার্মেসি সহ বাজারের ২০০ ব্যবসায়ির দোকান।

কান্না জর্জরিত কণ্ঠে নিকুঞ্জ বড়ুয়া জানান, আগুন সব কিছু কেড়ে নিল। দোকানে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার পণ্য ছিল, সব শেষ, এখন নি:স্ব।

১৯৭১, ১৯৭৪, ১৯৯৮, ২০০৬ সালে আগুনে পুড়েছে থানচি বাজার। একটু মাথা উঠে দাঁড়াতেই এবারও আগুন নি:স্ব করে দিল তাদের। আগুনে নি:স্ব ব্যবসায়ীদের অনেকে পেশা বদল করেও ব্যবসায়ে স্বপ্ন দেখেছে বারবার কিন্তু প্রতিবারই আগুন নি:স্ব করেছে তাদের।

মো: সামশুল আলম, মোসলেম উদ্দিন সহ আরো কয়েকজন জানান, যৌবনের সব বয়স কেটেছে এই থানচি বাজারে। বারবার আগুন আমাদের নি:স্ব করেছে । ঘুড়ে দাঁড়াতে দাঁড়াতে এখন বয়স শেষের দিকে।

প্রবীণ ব্যবসায়ি মংউচিং মারমা বলেন, বর্তমান সরকার আমাদের একটি ফায়ার ষ্টেশন ও দুই একটি ইট ভাটা নির্মাণ করে দিয়েছে। অবশ্যই আমরা ঘুরে দাড়াঁবো, আমাদের মনোবল এখন ও হাড়াইনি।

থানচি বাজার পরিচালনা কমিটি সভাপতি ও আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা স্বপন কুমার বিশ্বাস বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপির প্রচেষ্টায় থানচি উপজেলায় ফায়ার স্টেশনের ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় জনবল নিয়োগ দিলেই এটি চালু হবে। তিনি আরো বলেন, বাজারের অভ্যন্তরীণ রাস্তাটি প্রশস্ত করা হতে পারে এবার।

থানচি বাজার ফান্ড কর্তৃপক্ষ নিয়োগকৃত বাজার চৌধুরী ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান খামলাই ম্রো বলেন, আমরা সরকারি আইন মেনে অপরিকল্পিত বাজারটিকে এবারে পরিকল্পিত বাজারের রুপান্তরিত করার জন্য উপজেলা পরিষদও প্রশাসনের সমন্বয়ে ইতিমধ্যে অভ্যন্তরীণ রাস্তাঘাট অলিগলি সব ঠিক করে ফেলেছি।

থানচি উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান থোয়াইহ্লামং মারমা বলেন, বাজারে দোকান নির্মাণ করার জন্য ব্যবসায়িদের সহজ শর্তে ব্যাংক ঋণে নিয়ে ব্যাংকারদের এগিয়ে আসা উচিত।

উল্লেখ্য বিগত ২৭ শে এপ্রিল এক ভয়াবহ আগুনে প্রায় ২শত দোকান ঘর পুরে ছাই হয়েছে।

আরও পড়ুন
Loading...