স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ায় লাশ হলেন হেডম্যান দ্বীপময় !

রাঙ্গামাটির রাজস্থলীর জিরো মাইল থেকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া ঘিলাছড়ি মৌজার হেডম্যান ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীপময় তালুকদারকে হত্যা করেছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। আজ বুধবার (২৩ অক্টোবর) সকাল সাড়ে সাতটার সময় তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবারের সদস্যরা।

নিহতের পারিবারিক সূত্র ও স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে। অপহরণের ঘটনাস্থলের পাশ্ববর্তী জঙ্গল থেকে দ্বীপময়ের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জােিয়ছে পুলিশ। নিহতের মাথায় গুলি করাসহ ধারালো অস্ত্র দিয়ে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা হয়েছে হেডম্যান দ্বীপময় তালুকদারকে।

স্থানীয়দের ধারণা,গত ১৭ অক্টোবর রাঙ্গামা‌টির উপজা‌তিয় ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী মিলনায়তনে হেডম্যান, কার্বারীসহ সর্বস্তরের জনপ্র‌তি‌নি‌ধি‌দের নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক সভায় যোগ দেয়ায় এ হত্যাকান্ড ঘটেছে।

রাঙ্গামা‌টি জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ওই সভায় তিন পার্বত্য জেলার ২০ জন হেডম্যানকে আমন্ত্রন জানানো হয় এবং তি‌নি উপ‌স্থিত ছিলেন।

রাজস্থলী থানার অফিসার ইনচার্জ মফজল আহাম্মেদ বলেন,সকাল সাতটার সময় একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা নিরাপত্তা বাহিনীকে খবর দেয়। এসময় আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হেডম্যান দ্বীপময় তালুকদারের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেছি।

তিনি আরো জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে দ্বীপময়কে পাওয়া যাচ্ছেনা মর্মে রাজস্থলী থানা পুলিশকে বলে মৌখিকভাবে জানিয়েছিলো।

মঙ্গলবার বিকাল ৪ টার দিকে রাজস্থলীর তাইতং পাড়াস্থ জিরো মাইল এলাকা থেকে অস্ত্রের মুখে তাকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিলো দুবৃর্ত্তরা। সকালে নিহতের লাশ উদ্ধারের পর সকাল সাড়ে আটটার সময় রাজস্থলী বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয়রা।

বিক্ষোভ কর্মসূচী থেকে এই নির্মম হত্যার সাথে জড়িত পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য রাজস্থলী বাজার বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা। এদিকে ঘটনার পর হেডম্যান দ্বীপময় হত্যার নিন্দা জানিয়েছে ইউ‌পি‌ডিএফ।

আরও পড়ুন
Loading...