সড়ে দাঁড়ালেন মামি মাম্যাচিং

নির্বাচন কমিশনে আপিল করে বান্দরবানে জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং মনোনয়ন বৈধ করালেও নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে না -এমনটাই জানিয়েছেন বান্দরবান জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক জাবেদ রেজা ।

তিনি আরো বলেন, দলের প্রতি আনুগত্যতা প্রকাশ করে তিনি সড়ে দাঁড়িয়েছেন । আর দলীয় কোন্দল নিরসন করে ঐক্যবদ্ধভাবে ধানের শীষের প্রার্থীকে জয়ী করা হবে ।

বিএনপির নেতা-কর্মীরা জানিয়েছেন, রিটানিং অফিসারের কাছে জমা দেয়া মনোনয়ন পত্রে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের স্বাক্ষর জাল ছিল এমনটাই অভিযোগ করেছিলেন বিএনপির অপর প্রার্থী সাচিং প্রু জেরী । জেরীর অভিযোগের ভিত্তিতে মাম্যাচিংয়ের মনোনয়নপত্র যাচাই বাচাই শেষে অবৈধ ঘোষণা করে রিটানিং অফিসার।

পরে মাম্যাচিং বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছ থেকে মনোনয়নের এর হলফনামা নিয়ে নির্বাচন কমিশনে আপিল করে তা বৈধ করেন।

আরো জানা যায়, সাচিং প্রু জেরী আর মাম্যাচিং উভয়ই মামি ভাগ্নে সম্পর্ক । কিন্তু দুজনকেই বিএনপির দুই মেরুর রাজনীতিবিদ বলেন নেতাকর্মীরা । তাদের অভ্যন্তরীণ দ্বন্ধ রাজপথে রুপ নিয়েছে সংঘাতে ।

গত ২ ডি‌সেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাইবাচাই শেষে ৯ জনের মধ্যে তিনজনকে বৈধ বলে ঘোষণা দেন জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা । ওই তিন জন হলেন আওয়ামী লী‌গের ম‌নোনীত প্রার্থী বীর বাহাদুর উ‌শৈসিং, বিএন‌পির ম‌নোনীত প্রার্থী সা‌চিং প্রু জেরি এবং ইসলামী আ‌ন্দোল‌নের ম‌নোনীত প্রার্থী শওকতুল ইসলাম ।

পরে বাকি ৬ জনের মনোনয়ন অবৈধ ঘোষণা করলে জেলা বিএনপির সভাপতি মাম্যাচিং নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন । গতকাল শুনানি শেষে নির্বাচন কমিশন মাম্যাচিং এর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেন । আর এই নিয়ে বান্দরবান সংসদীয় আসনে বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৪ জন ।

আরও পড়ুন

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।